sanjeev bhatt
সঞ্জীব ভাট। ফাইল ছবি

অমদাবাদ: ২২ বছরের পুরোনো একটি মামলায় গুজরাতের প্রাক্তন আইপিএস সঞ্জীব ভাটকে আটক করল সিআইডি। ১৯৯৬ সালে এক আইনজীবীকে মিথ্যে মামলায় ফাঁসানোর অভিযোগ আনা হয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে।

ওই মামলায় ভাট ছাড়া আরও সাত জনকে আটক করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন গুজরাত সিআইডির ডিজি আশিস ভাটিয়া। ১৯৯৬ সালে বনসকাঁথা জেলার পুলিশ সুপার ছিলেন ভাট।

উল্লেখ্য, নিজের কাছে নিষিদ্ধ মাদক রাখার অভিযোগে আইনজীবী সুমেরসিংহ রাজপুরোহিতকে গ্রেফতার করেছিল বনসকাঁথা পুলিশ। কিন্তু পরে রাজস্থান পুলিশের করা একটি তদন্তে জানা যায় মিথ্যে মামালায় রাজপুরোহিতকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। ওই আইনজীবী এর পরে গুজরাত হাইকোর্টে আবেদন করেন। তাঁর আবেদনের ভিত্তিতে সিআইডিকে গোটা ঘটনার তদন্তের ভার দেয় হাইকোর্ট।

উল্লেখ্য, কাজে অনুপস্থিত থাকার অভিযোগে ২০১৫ সালে তাঁকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করে দেয় গুজরাত সরকার। তার পর থেকেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে মাঝেমধ্যেই সরব হন ভাট। ফেসবুক এবং টুইটারে মাঝেমধ্যেই সরকার-বিরোধী পোস্ট করেন তিনি। এর প্রতিহিংসাস্বরূপ ভাটকে আটক করা হল কি না, সেই ব্যাপারেও প্রশ্ন তুলেছে বিরোধীরা।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন