বেঙ্গালুরু: গল্পে গোরু গাছে ওঠে। আবার ইতিহাসেও পাখির ডানায় বসে সফর করে মানুষ!

কর্নাটকের হাইস্কুলের পাঠ্যক্রমে বিনায়ক দামোদর সাভারকরের উপর একটি বিষয় অন্তর্ভুক্ত করেছে রাজ্যের পাঠ্যপুস্তক সংশোধন কমিটি। আর তাতেই “ইতিহাস পুনর্লিখন” বিতর্কের সূত্রপাত।

জানা গিয়েছে, অষ্টম শ্রেণির কন্নড় পাঠ্যপুস্তকে সাভারকরের আন্দামান কারাগারে বন্দি থাকাকালীন ঘটনার কথা বর্ণনা করা হয়েছে। বলা হয়েছে, সাভারকর জেলের কুঠুরি থেকে পাখির ডানায় বসতেন এবং মাতৃভূমি দেখার জন্য উড়ে যেতেন।

নতুন পাঠ্যপুস্তকের একটি অনুচ্ছেদ ঠিক এ ভাবেই বর্ণনা করা হয়েছে ঘটনার, “যে ঘরে সাভারকরকে বন্দি করা হয়েছিল সেখানে একটি চাবির ছিদ্রও ছিল না। কিন্তু, বুলবুল পাখি ঘরে যেত। সাভারকর তাদের ডানায় বসতেন এবং উড়ে যেতেন। এ ভাবেই প্রতিদিন তিনি মাতৃভূমিতে যেতেন”।

দ্য হিন্দুর একটি প্রতিবেদন অনুযায়ী, অনুচ্ছেদটি নিয়ে আপত্তি জানিয়েছেন একাংশের শিক্ষকরাও। তাঁরা বলেছেন, বইয়ে এটা এমন ভাবে উল্লেখ করা হয়েছে যেন এই ঘটনা “আক্ষরিক সত্য” এবং সাভারকর সত্যিই পাখির ডানায় বসে সফর করতেন।

সমালোচকদের মতে, লেখক হয়তো বলার চেষ্টা করছেন, কী ভাবে নিজের আবেগ এবং অনুভূতির মাধ্যমে মাতৃভূমিতে বিচরণ করতেন সাভারকর। কিন্তু সেটা করতে গিয়েই অথবা তাঁকে আরও মহিমান্বিত করতে গিয়ে ইতিহাসের বিকৃতি ঘটনা হয়েছে।

উল্লেখ্য, হিন্দু মহাসভার নেতা ও ‘হিন্দুত্ব’ মতাদর্শের জনক বিনায়ক দামোদর সাভারকরকে তাত্ত্বিক গুরু বলে মনে করে বিজেপি-আরএসএস। তবে কংগ্রেস বারবারই মনে করিয়ে দেয়, মহাত্মা গান্ধীর হত্যায় সাভারকর অন্যতম অভিযুক্ত ছিলেন। প্রমাণের অভাবে তিনি ছাড়া পেয়ে যান। সেলুলার জেলে বন্দি থাকার সময়ে তিনি মুক্তি পেতে ব্রিটিশদের কাছে বারবার ক্ষমাপ্রার্থনাও করেছিলেন।

আরও পড়তে পারেন: 

সভাপতি নির্বাচন ১৭ অক্টোবর, সিদ্ধান্ত কংগ্রেস ওয়ার্কিং কমিটির

গুজরাতের বদনাম করার ষড়যন্ত্র, বিনিয়োগ ঠেকানোর চেষ্টা, জোরালো অভিযোগ প্রধানমন্ত্রী মোদীর

Twin Towers Demolition: ৯ সেকেন্ডে ধূলিসাৎ নয়ডার যমজ অট্টালিকা, ধ্বংসস্তূপ সাফ করতে সময় লাগবে ৯০ দিন

‘লুটেপুটে খাওয়া নেতানেত্রীরা দলের সম্পদ’, বিস্ফোরক মন্তব্য়ের পর ক্ষমা চাইলেন মন্ত্রী শ্রীকান্ত মাহাতো

শ্রীলঙ্কার বন্দরে চিনা ‘গুপ্তচর জাহাজ’, দিল্লি-বেজিং বাক্‌যুদ্ধ

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন