eci
প্রতীকী ছবি

নয়াদিল্লি: নির্বাচনের সময় প্লাস্টিকের ব্যবহার, বিশেষত ব্যানার ও হোর্ডিংয়ের বিরুদ্ধে আবেদনের শুনানিতে বৃহস্পতিবার সুপ্রিম কোর্ট কেন্দ্র এবং ভারতের নির্বাচন কমিশনের কাছে জবাব চাইল।

বিচারপতি এল নাগেশ্বর রাও এবং বিচারপতি হেমন্ত গুপ্তের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ চার সপ্তাহের মধ্যে কেন্দ্রের পরিবেশ ও বন মন্ত্রক এবং নির্বাচন কমিশনের প্রতিক্রিয়া চেয়ে নোটিশ জারি করেছে।

শীর্ষস্থানীয় আদালত এ দিন ন্যাশনাল গ্রিন ট্রাইব্যুনালের আদেশের বিরুদ্ধে আইনজীবী ডব্লিউ এডউইন উইলসনের করা আবেদনের উপর শুনানি করে। নির্বাচন কমিশন এবং সমস্ত রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের মুখ্য নির্বাচন আধিকারিকদের প্লাস্টিকের ব্যবহারের উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপের দাবি তুলেছিলেন উইলসন।

সুপ্রিম কোর্টের কাছে জানানো আবেদনে আইনজীবী সঞ্জয় উপাধ্যায় এবং সালিক শফিকের প্রতিনিধিত্ব করেন। তাঁরা দাবি করেন, নির্বাচনে ব্যবহৃত পিভিসি ব্যানার ব্যবহারে ট্রাইব্যুনাল নিষেধাজ্ঞা জারি করেনি, এটাই একটা বিরাট বিপত্তি।

উইলসন দাবি করেছিলেন, প্রচারের কাজে ব্যবহৃত প্লাস্টিকের তৈরি উপাদান নির্বাচনের সময় ব্যবহৃত হয় এবং পরে বর্জ্য হিসাবে ফেলে দেওয়া হয় যা পরিবেশের জন্য ক্ষতিকারক।

[ আরও পড়ুন: বাজি না কি পরমাণু বোমা? ক্ষতিপূরণ ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর ]

তিনি নির্বাচনের সময় প্রচার ও বিজ্ঞাপনের জন্য স্বল্প-মেয়াদি পলভিনাইল ক্লোরাইড (পিভিসি), সিন্থেটিক প্লাস্টিক পলিমার এবং ক্লোরিনযুক্ত প্লাস্টিকের ব্যানার ও হোর্ডিংয়ের ব্যবহার নিষিদ্ধ করার আবেদন করেছিলেন।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন