অপরাধ দৃশ্যের ভিডিও, ছবি তোলার মোবাইল অ্যাপ বিশেষজ্ঞ দিয়ে পরীক্ষা করাতে হবে, নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের

0
supreme court
সুপ্রিম কোর্ট। ফাইল ছবি

নয়াদিল্লি: অপরাধের তদন্তে প্রযুক্তির ব্যবহার বাড়ানোর জন্য বিশেষ নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। অপরাধ দৃশ্যের ভিডিয়োগ্রাফি এবং ফোটোগ্রাফির জন্য দিল্লি পুলিশ যে মোবাইল অ্যাপ ব্যবহার করে, তা বিশেষজ্ঞদের দিয়ে পরীক্ষা করানোর নির্দেশ দিয়েছে সর্বোচ্চ আদালত।

কোনো অপরাধের তদন্তে অপরাধ দৃশ্যের ভিডিয়োগ্রাফি বাধ্যতামূলক করা যায় কি না এবং যদি করা হয়, তা হলে সেটা কী ভাবে আইন-আদালতে গ্রহণযোগ্য প্রমাণ হিসেবে মান্যতা পেতে পারে, সেই সংক্রান্ত বিষয়ের উপর শুনানির সময় এই মন্তব্য করেছে সুপ্রিম কোর্ট।

সর্বোচ্চ আদালত বলেছে, তদন্তের জন্য সমস্ত প্রযুক্তিগত উদ্ভাবন ব্যবহারের সময় অবশ্যই নিশ্চিত করতে হবে যে, ছবি বা ভিডিয়োর মাধ্যমে অপরাধের দৃশ্য তোলা এবং অ্যাপের মাধ্যমে এই জাতীয় মিডিয়া আপলোড যেন সম্পূর্ণ ভাবে টেম্পার-ফ্রি এবং সম্পূর্ণ এনক্রিপ্ট করা থাকে।

একই সঙ্গে এটাও নিশ্চিত করতে হবে যে, ছবি এবং ভিডিওগুলো তোলা এবং অ্যাপের মাধ্যমে আপলোড করা অবশ্যই সমসাময়িক হতে হবে এবং যতটা সম্ভব জিপিএস অবস্থানের সঙ্গে তা সংশ্লিষ্ট থাকতে হবে।

সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি উদয় উমেশ ললিতের নেতৃত্বে এবং বিচারপতি এস রবীন্দ্র ভাটের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চের পর্যবেক্ষণে বলা হয়েছে, সংগৃহীত এবং আপলোড করা উপাদানগুলি একটি ফৌজদারি বিচারে প্রমাণ হিসাবে অন্তর্নিহিত ভাবে বিশ্বাসযোগ্য হতে পারে, তা এই মানদণ্ডগুলোই নিশ্চিত করবে। তবে আদালত এখনই এ ব্যাপারে কোনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে আসতে চায় না। বেঞ্চ বলেছে, “আমরা চাই দক্ষিণ দিল্লি জেলার ১৫টি থানায় দিল্লি পুলিশের প্রয়োগ করা প্রোটোটাইপ আগে বিশেষজ্ঞদের দিয়ে পরীক্ষা করানো হোক। সে ক্ষেত্রে মোবাইল অ্য়াপ যদি বিশেষজ্ঞদের ছাড়পত্র পেয়ে যায়, তা হলে তাঁদের রিপোর্ট আদালতের নির্দেশ দেওয়ার বিষয়টাকে সাহায্য করতে পারে”।

আরও পড়তে পারেন:

ত্রিপুরায় গ্রেফতার সায়নী ঘোষ, সোমবার দিল্লিতে ধরনায় বসছেন তৃণমূল সাংসদরা

বদলাচ্ছে নিয়ম! স্কুলের সময়সীমা নিয়ে নয়া বিজ্ঞপ্তি মধ্যশিক্ষা পর্ষদের

ভারতী ঘোষকে বড়ো দায়িত্ব দিল বিজেপি, এ বার দলের জাতীয় মুখপাত্র

শেষমেশ সায়নী ঘোষকে গ্রেফতার করল ত্রিপুরা পুলিশ

ক্যানিংয়ের তৃণমূল যুব নেতা খুনে ধৃত ৯

তৃণমূলে যোগ দিলেন বিষপানকারী সেই ৫ শিক্ষিকা

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন