মমতার কাছ থেকে মুখ্যমন্ত্রিত্ব কেড়ে নেওয়ার আর্জি খারিজ সুপ্রিম কোর্টে

0
প্রতিনিধিত্বমূলক ছবি

নয়াদিল্লি: মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীপদ থেকে অপসারণের আর্জি নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন এক সাংবাদিক। তিনি সর্বোচ্চ আদালতের কাছে আর্জি জানিয়েছিলেন, রাজ্যপাল জগদীপ ধানখড়কে নির্দেশ দেওয়া হোক মমতাকে ওই পদ থেকে অপসারণ করার। তবে শুক্রবার ওই আর্জি খারিজ করে দিলেন প্রধান বিচারপতি।

দলের একটি সভায় মমতার একটি মন্তব্যকে কেন্দ্র করেই বিতর্কের সূত্র ধরে আদালতে গিয়েছিলেন ওই সাংবাদিক। সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ)-র বিরুদ্ধে পথে নেমে মমতা দাবি করেছিলেন, সিএএ এবং জাতীয় নাগরিকপঞ্জী (এনআরসি) নিয়ে সাধারণ মানুষের মত যাচাই করতে “রাষ্ট্রসঙ্ঘের তত্ত্বাবধানে গণভোটের আয়োজন করা হোক”।

সংবাদ সংস্থা এএনআইয়ের প্রতিবেদন অনুযায়ী, এ দিন প্রধান বিচারপতি শরদ অরবিন্দ বোবডের নেতৃত্বাধীন একটি বেঞ্চ আবেদনকারীকে নির্দেশ দেয়, বিষয়টি নিয়ে হাইকোর্টে যাওয়ার।

বেঞ্চ আবেদনকারীর উদ্দেশে জানায়, আমরা বলছি না, এটা কোনো গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নয়। তবে এটাই বলতে চাই, আপনি হাইকোর্টে যান। আবেদনটিতে বলা হয়েছিল, “মুখ্যমন্ত্রীর আসনে বসে মমতা ভারতীয় সার্বভৌমত্ব এবং অখণ্ডতা নিয়েই প্রশ্ন তুলে দিয়েছেন”।

আবেদনকারীর দাবি, “এর পর আর মুখ্যমন্ত্রীর আসনে বসার অধিকার নেই মমতার”।

প্রসঙ্গত, মমতা দাবি করেছিলেন, “এটা অস্তিত্বের লড়াই। রাজনীতির রং ভুলে সবাই প্রতিবাদে শামিল হন। নাগরিক আইন নিয়ে দেশে ভোটাভুটি হোক। রাষ্ট্রপুঞ্জকে দিয়ে দেশে গণভোট করানো হোক”।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন