কাশ্মীরে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের বিষয়ে সুপ্রিম কোর্টে ধাক্কা খেলেন এক আবেদনকারী

Supreme Court
প্রতীকী ছবি

নয়াদিল্লি: জম্মু-কাশ্মীরে আরোপিত নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের বিষয়ে ধাক্কা খেলেন আবেদনকারী তথা সমাজকর্মী তেহসিন পুনাওয়ালা। নবগঠিত ওই কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে প্রশাসনিক নিষেধাজ্ঞায় হস্তক্ষেপ করতে রাজি হল না শীর্ষ আদালত। আদালতের পর্যবেক্ষণ, কাশ্মীরে এখন যা পারিস্থিতি, তাতে তাড়াতাড়ি কিছু করা ঠিক হবে না। বরং পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। সময় দিতে হবে কেন্দ্রীয় সরকারকেও। দু’সপ্তাহ পর ফের আবেদনটির শুনানি হবে।

মঙ্গলবার মামলাটির শুনানি চলাকালীন বিচারপতি অরুণ মিশ্রের নেতৃত্বাধীন ডিভিশন বেঞ্চ জানায়, ‘‘আমরাও চাই উপত্যকা ফের স্বাভাবিক হয়ে যাক। কিন্তু রাতারাতি কিছু হওয়া সম্ভব নয়। এই মুহূর্তে ওখানে কী হচ্ছে কেউ তা জানে না। তাই সরকারের উপর ভরসা করা ছাড়া উপায় নেই। এটা অত্যন্ত সংবেদনশীল বিষয়।’’ আদালতের আরও বক্তব্য, “সরকারকে সময় দিতেই হবে। উপত্যকার পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে আমাদের। তার পরেও ছবিটা যদি কিছু না বদলায়, তখন ফের আদালতে আসতে পারেন আবেদনকারী।’’

আরও পড়ুন কাশ্মীরে ছোট্টো মেয়ের হেঁটে যাওয়ার ভাইরাল ছবিটি ২০১৯ নয়, ২০১৬ সালের তোলা, দাবি এএফপির

যদি কেন্দ্রের হয়ে সওয়াল করা অ্যাটর্নি জেনারেল কেকে বেণুগোপাল বলেন, অতীতের অনেক ঘটনার তুলনায় উপত্যকা এখন অনেক শান্ত রয়েছে। তিনি বলেন, ‘‘২০১৬-র জুলাই মাসে হিজবুল মুজাহিদিন কমান্ডার বুরহান ওয়ানির মৃত্যুর পর বহু মানুষ রাস্তায় নেমে এসেছিলেন। ৪০ জনের মৃত্যু হয়েছিল। এ বার এখনও পর্যন্ত কোনো প্রাণহানি ঘটেনি। খুব শীঘ্র পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে যাবে বলে আশা আমাদের। আর তা হলেই নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়া হবে।’’ উপত্যকার পরিস্থিতির দিকে কেন্দ্রীয় সরকার সারা ক্ষণ নজর রেখেছে বলেও আদালতে জানান তিনি।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.