gang rape

ওয়েবডেস্ক: স্কুলের এক ছাত্রীকে গণধর্ষণ করার জন্য হাত মেলাল স্কুলের প্রিন্সিপাল, শিক্ষক এবং ওই ছাত্রীর সহপাঠীরা। ঘটনাটি ঘটেছে বিহারের সারন জেলার একটি বেসরকারি স্কুলে।

পুলিশের কাছে ওই ছাত্রী যে অভিযোগ জানিয়েছে সেখানে সে বলেছে, গত সাত মাস ধরে তাকে ক্রমাগত ধর্ষণ করে চলেছে স্কুলের প্রিন্সিপাল, দু’জন শিক্ষক এবং ১৫ জন সহপাঠী। এফআইআরে জানানো হয়েছে, গত বছর ডিসেম্বরে স্কুলের বাথরুমে তাকে প্রথম ধর্ষণ করে তিন জন ছাত্র। এই ঘটনার ভিডিও করে এক জন সহপাঠী। এই ঘটনার ব্যাপারে ওই ছাত্রী যদি কাউকে বলে তা হলে সেই ভিডিও ভাইরাল করে দেওয়ার হুমকিও দেওয়া হয়।

কিন্তু কিছু দিনের মধ্যেই অভিযুক্তরা ওই ভিডিও স্কুলে ছড়িয়ে দেয়। তার পর থেকে বারবার তাকে ব্ল্যাকমেল করা হয় বলে অভিযোগ। এর পর থেকে আরও কয়েক জন সহপাঠী, দু’জন শিক্ষক এবং স্কুলের খোদ প্রিন্সিপালেরও লালসার শিকার হয় সে।

ছাত্রীটির পরিবারের অভিযোগ, প্রথম দিকে অভিযোগ নিতে অস্বীকার করে পুলিশ। অভিযোগ না নিলে ঊর্ধ্বতন অফিসারের কাছে যাওয়া হবে, এই হুমকি দেওয়া হলে পুলিশ নড়েচড়ে বসে। এখনও পর্যন্ত প্রিন্সিপাল, শিক্ষকে এবং দু’জন ছাত্রকে গ্রেফতার করা হলেও, বাকি ছাত্ররা এখনও ফেরার। তাদের দ্রুত ধরার ব্যাপারে আশ্বাস দিয়েছে পুলিশ।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here