manali snowfall

মানালি: অবশেষে এল তুষারের ছোঁয়া। মরশুমের প্রথম তুষারপাতে সাদা হল হিমাচলের মানালি এবং কাশ্মীরের রাজধানী শ্রীনগর।

পশ্চিমী ঝঞ্ঝার হাত ধরে কাশ্মীর এবং হিমাচলে প্রবল তুষারপাতের পূর্বাভাস দিয়েছিল আবহাওয়া দফতর। সেই পূর্বাভাসকে সত্যি প্রমাণ করেই সোমবার সকাল থেকে বৃষ্টি শুরু হয় এই দুই রাজ্যে। তুষারপাত হয় উঁচু জায়গাগুলিতে। তবে সোমবার সন্ধের পরে তুষারপাতের পরিস্থিতি অনুকূল হয়ে ওঠে মানালি এবং পার্শ্ববর্তী অঞ্চলে। রাতের দিকে শুরু হয় তুষারপাত। সোমবার সারা রাতই হালকা তুষারপাত হয়েছে বাঙালিদের কাছে অত্যন্ত পছন্দের এই শহরে।

আবহাওয়া দফতরের এক আধিকারিকের কথায়, “মানালি এবং তার আশেপাশের এলাকায় সোমবার সারা রাতই তুষারপাত হয়েছে। বুধবার পর্যন্ত তুষারপাতের সম্ভাবনা রয়েছে।” তাঁর কথায় শুধু মানালিই নয়, তুষারপাত হয়েছে লাহুল-স্পিতি, চম্বা, কিন্নর এবং মান্ডি জেলার উঁচু এলাকাগুলিতে। রাজধানী শিমলায় এখনও তুষারপাত না হলেও, শহরের অদূরে জনপ্রিয় পর্যটন কেন্দ্র কুফরি, ফাগুতে এবং নারকান্ডায় হালকা তুষারপাত হয়েছে।

(দেখুন মানালির তুষারপাতের একটি ভিডিও)

এই তুষারপাতের ফলে খুশির হাওয়া মানালির হোটেল মালিকদের মধ্যে। তাঁদের আশা খুব শীঘ্রই পর্যটকদের ঢল নামবে শহরে।

এ দিকে সোমবার সারা রাত তুষারপাত হয়েছে শ্রীনগরেও। মঙ্গলবারও সকাল থেকে তুষারপাত চলছে। প্রায় এক মাস কোনো রকম বৃষ্টির মুখ দেখেনি শ্রীনগরবাসী। ডাল লেকের জলও কমতে শুরু করেছে। এই তুষারপাত তাই শহরের বাসিন্দাদের মুখে হাসি ফুটিয়েছে।

শ্রীনগরের পাশাপাশি তুষারপাত হয়েছে গুলমার্গ, শোনমার্গ-সহ কাশ্মীরের প্রায় সবক’টি জনপ্রিয় পর্যটন কেন্দ্রে। তুষারপাতের ফলে বন্ধ রয়েছে জম্মু-শ্রীনগর জাতীয় সড়ক। আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস, বুধবার থেকে উন্নতি করতে শুরু করবে আবহাওয়া। বন্ধ হবে তুষারপাত।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here