মুম্বই: ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত ১৪৪ ধারার মেয়াদ বাড়ানো হল মু্ম্বইয়ে। গত কয়েক দিনে আচমকা করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি এবং ওমিক্রনে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়তে থাকায় এই পদক্ষেপ নিল মহারাষ্ট্র সরকার।

ভারতীয় ফৌজদারি কার্যবিধির ১৪৪ ধারা অনুযায়ী, কোনো জায়গায় পাঁচ বা তার বেশি ব্যক্তির জমায়েত নিষিদ্ধ। এ ছাড়া বিকেল ৫টা থেকে ভোর ৫টা পর্যন্ত বাসিন্দাদের সমুদ্র সৈকত, খোলা মাঠ, ঘোরার জায়গা, উদ্যান, পার্ক অথবা জমায়েত সম্ভব এমন জায়গাগুলিতে যেতে নিষেধ করেছে মু্ম্বই পুলিশ।

ইংরাজি বর্ষবরণকে সামনে রেখে এর আগে ৩০ ডিসেম্বর থেকে ৭ জানুয়ারি পর্যন্ত ১৪৪ ধারা জারির ঘোষণা করেছিল পুলিশ। তবে এক দিনে করোনা সংক্রমিত চার হাজারের উপরে থাকায় সেই নির্দেশিকার মেয়াদ বাড়াল পুলিশ।

অন্য দিকে, ৩০ ডিসেম্বর থেকে ৭ জানুয়ারি পর্যন্ত রেস্তোঁরা, হোটেল, বার, পাব, রিসর্ট এবং ক্লাব-সহ যে কোনো ঘেরা বা খোলা জায়গায় নববর্ষ উদযাপন, পার্টিগুলিতে সম্পূর্ণ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে বৃহন্মুম্বই কর্পোরেশন। পাশাপাশি মহারাষ্ট্র সরকারের তরফেও সামাজিক, রাজনৈতিক ও ধর্মীয় অনুষ্ঠানগুলিতে বিধিনিষেধ জারি করা হয়েছে।

রাজ্যের তথ্য অনুযায়ী, এখন মুম্বইতে সংক্রমণের হার ৮.৫ শতাংশ। শুক্রবার পর্যন্ত ওমিক্রনে সংক্রমিত বেড়ে হয়েছে সাড়ে চারশো, এর মধ্যে ১২৫ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন।

শুক্রবার পর্যন্ত সারা দেশে ওমিক্রনে সংক্রমিতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ২৭০ জনে। বৃহস্পতিবার যে সাড়ে ৪১২ জন ওমিক্রন সংক্রমিত হয়েছেন, তাঁদের মধ্যে শুধুমাত্র মহারাষ্ট্রেই ১৯৮ জন। আবার এর মধ্যে মুম্বইয়েই ১৯০ জন। বাকি আট জন থানে, পুণে, সতারা, পিম্পরি চিঞ্চওয়াড় এবং নান্দেদের বাসিন্দা।

আরও পড়তে পারেন:

স্ত্রীকে সহবাসে বাধ্য করতে পারেন না স্বামী, তাৎপর্যপূর্ণ রায় হাইকোর্টের

দিল্লির পর মুম্বইয়েও শুরু হয়েছে ওমিক্রনের গোষ্ঠী সংক্রমণ, উঠছে প্রশ্ন

অহেতুক ওমিক্রন উদ্বেগ, হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরলেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়

 রাজ্যের বিরোধিতায় মত বদল, বস্ত্রশিল্পে জিএসটি বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত থেকে পিছু হঠল কেন্দ্র

২৩ রাজ্যে পৌঁছোল ওমিক্রন, সংক্রমিত ১,২৭০

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন