সিরসা: ব্যক্তিগত আবার থেকে সাধ্বী নিবাস পর্যন্ত চলে গিয়েছে রাস্তাটা। এমনই এক সুড়ঙ্গ পথ আবিষ্কার হল ডেরার ডেরায়। এর পাশাপাশি একটি বেআইনি বিস্ফোরক কারখানারও হদিশ মিলেছে। শুক্রবারই গুরমিত রাম রহিমের ডেরা থেকে প্রচুর নগদ টাকা, ল্যাপটপ এবং প্লাস্টিক কারেন্সি উদ্ধার করেছিল নিরাপত্তাবাহিনী।

হরিয়ানার তথ্য এবং জনসংযোগ দফতরের ডেপুটি ডিরেক্টর সতীশ মেহরা বলেন, “আমরা জানলার মতো চৌকোনা একটা সুরঙ্গপথের খোঁজ মিলেছে যেটা ডেরা আবাস থেকে সাধ্বী নিবাস পর্যন্ত গিয়েছে।” তবে এটা ছাড়াও আরও একটা সুড়ঙ্গের সন্ধান পেয়েছে নিরাপত্তাবাহিনী। সম্ভবত পালানোর পথ হিসেবেই এটা তৈরি রাখা ছিল বলে ধারণা পুলিশের।

শনিবার অবশ্য প্রথমেই ৮০ কার্টুন বেআইনি বিস্ফোরক উদ্ধার করেছে পুলিশ-আধাসেনার যৌথবাহিনী। বাজি তৈরি করার জন্য এই বিস্ফোরক ব্যবহার করা হত বলে জানিয়েছেন আধিকারিকরা। কারখানাটিকে সিল করে দেওয়া হয়েছে। ফরেনসিক বিশেষজ্ঞরা বিস্ফোরক পরীক্ষা করছেন। সতীশবাবু বলেন, “ডেরার দফতরে একটা বিস্ফোরক কারখানার খোঁজ পাওয়া গিয়েছে। সেটা সম্পূর্ণ বেআইনি।

পঞ্জাব ও হরিয়ানা হাইকোর্ট নিযুক্ত কোর্ট কমিশনার একেএস পানওয়ারের তত্ত্বাবধানে এই তল্লাশি অভিযান চলছে। পুরো অভিযানের ভিডিওগ্রাফি করা হচ্ছে। প্রসঙ্গত অভিযান চালাতে গিয়ে পুলিশের আধিকারিকরাই বিস্ময়ে হতবাক হয়ে গিয়েছেন। অভিযানের পরের দিকে মেলে নম্বর প্লেট ছাড়া একটি বিলাসবহুল কালো গাড়ি, ওবি ভ্যান, ১২০০ নতুন নোট এবং ৭০০০ বাতিল নোটও।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here