নয়াদিল্লি: আপাতত স্থগিত হয়ে গেল রাষ্ট্রদ্রোহ আইনের প্রয়োগ। আইনের পুনর্বিবেচনা চলাকালীন নতুন করে কারও বিরুদ্ধে এই আইনে মামলা দায়ের করা যাবে না। পাশাপাশি যাঁদের বিরুদ্ধে ইতিমধ্যেই এই আইনে মামলা হয়েছে, সেই সব বন্দিরা জামিনের আবেদন জানাতে পারবেন। বুধবার এমনই নির্দেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট।

রাষ্ট্রদ্রোহ আইন বাতিলের দাবিতে মঙ্গলবার একাধিক মামলার শুনানি শুরু করেছে সুপ্রিম কোর্ট। গত সোমবার একটি হলফনামা দাখিল করে কেন্দ্র। যেখানে বলা হয়, “ভারতীয় দণ্ডবিধি ১২৪-এ (বিদ্রোহ) ধারার পুনরায় পরীক্ষা এবং পুনর্বিবেচনার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে”।

তারই প্রেক্ষিতে পুনর্বিবেচনা চলাকালীন কেন্দ্রের অবস্থান সম্পর্কে জানতে চায় সুপ্রিম কোর্ট। তাৎপর্যপূর্ণ ভাবে কেন্দ্রের উদ্দেশে আদালত বলে, পুনর্বিবেচনার অধীনে থাকাকালীন বিচারাধীন এবং ভবিষ্যতের মামলাগুলির বিষয়ে কেন্দ্রের অবস্থান কী? আদালতকে নিজের অবস্থান জানাতে বুধবার পর্যন্ত সময় দেওয়া হয় কেন্দ্রকে।

এ দিন প্রধান বিচারপতি এনভি রমনার নেতৃত্বাধীন বেঞ্চ বলে, এই আইন পুনর্বিবেচনা করবে ভারত। আইন বাতিলের দাবিতে অনেক মামলা চলছে। আবেদনকারীদের অভিযোগ, আইনটির অপব্যবহার করা হচ্ছে। মহারাষ্ট্রের হনুমান চালিশা মামলাতে আইনটির অপব্যবহার করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। পুনর্বিবেচনা চলাকালীন রাষ্ট্রদ্রোহের জন্য কোনো নতুন এফআইআর দায়ের করা যাবে না এবং সরকার আইনটি পুনর্বিবেচনা করার সময় সমস্ত মুলতুবি মামলা স্থগিত থাকবে।

প্রসঙ্গত, আগের দিন শুনানিতে কেন্দ্রের উদ্দেশে সর্বোচ্চ আদালত বলেছিল, তিন-চার মাসের মধ্যে রাষ্ট্রদ্রোহ আইন পুনর্বিবেচনার কাজ সম্পূর্ণ করা হোক। পাশাপাশি জানতে চাওয়া হয়, ১২৪ এ-র অধীনে বিষয়গুলি কেন্দ্র পুনর্বিবেচনার প্রক্রিয়া শেষ না করা পর্যন্ত কেন রাজ্য সরকারগুলিকে স্থগিত রাখার নির্দেশ দেওয়া হচ্ছে না। এ দিন কেন্দ্রের তরফে জানানো হয়, পুলিশ সুপার বা তার চেয়ে উঁচু পদমর্যাদার আধিকারিকরাই যেন কেবল রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা করতে পারেন। যদিও সর্বোচ্চ আদালত সাফ জানিয়ে দেয়, যতদিন পুনর্বিবেচনা প্রক্রিয়া চলবে, ততদিন এই আইন স্থগিত থাকবে।

আরও পড়তে পারেন:

কাটল দীর্ঘ জটিলতা, বিধায়ক হিসেবে শপথ নিলেন বাবুল সুপ্রিয়

স্মার্টফোন, ল্যাপটপ, টেলিভিশন, রেফ্রিজারেটরের দাম বাড়তে পারে, জানুন কেন

সংক্রমণের হার ৪.৩৮ শতাংশ, দিল্লিতে করোনা কমার ইঙ্গিত

হাওড়া-ব্যান্ডেল শাখায় চার ঘণ্টা বন্ধ থাকবে ট্রেন, চূড়ান্ত দুর্ভোগের আশংকা

পশ্চিমবঙ্গ উপকূলের অনেক আগেই দম হারাবে অশনি, তবুও এত আতংক তৈরি কেন!

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন