নয়াদিল্লি: হোটেল-রেস্তোরাঁয় খেয়ে উপভোক্তা সার্ভিস চার্জ দেবেন কি না, তা তাঁর ‘সম্পূর্ণ ঐচ্ছিক’ বিষয়। সার্ভিস চার্জ দেওয়া কোনো ভাবেই ‘বাধ্যতামূলক’ নয়, জানিয়ে দিলেন কেন্দ্রীয় খাদ্য ও উপভোক্তা বিষয়ক মন্ত্রী রামবিলাস পাসোয়ান। শুক্রবার এই সংক্রান্ত নির্দেশিকাটি অনুমোদন করল কেন্দ্র।

মন্ত্রী এদিন জানান, সার্ভিস কার্জ কত হবে, সে বিষয়ে হোটেল বা রেস্তোরাঁগুলি সিদ্ধান্ত নিতে পারবে না, উপভোক্তার যা মনে হবে, সেটাই তিনি দেবেন। যথাযথ পদক্ষেপের জন্য এ সংক্রান্ত নির্দেশিকাটি রাজ্যগুলির কাছে পাঠিয়ে দেওয়া হবে।

 

নির্দেশিকা অনুযায়ী, বিলে সার্ভিস চার্জেের জায়গাটি ফাঁকা থাকবে, টাকা দেওয়ার আগে উপভোক্তা ওই ফাঁকা জায়গাটি ভর্তি করে দেবেন।

যদি কোনো হোটেল বা রেস্তোরাঁ বাধ্যতামূলক সার্ভিস চার্জ নেন, তাহলে উপভোক্তা ক্রেতা আদালতে মামলা করতে পারবেন বলে জানিয়েছেন উপভোক্তা বিষয়ক দফতরের এক আধিকারিক।

তবে, কোনো হোটেল এই নির্দেশ না মানলে, তার বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ বা  বড়ো অঙ্কের জরিমানার সিদ্ধান্ত নিতে পারবে না আদালত। কারণ, বর্তমান ক্রেতা সুরক্ষা আইনে সেই সুযোগ নেই।

তবে নতুন যে ক্রাতা সুরক্ষা বিল তৈরি হয়েছে, তাতে সেই ব্যবস্থা থাকবে বলে জানা গেছে।

গত সপ্তাহেই উপভোক্তা বিষয়ক মন্ত্রী রামবিলাস পাসোয়ান জানিয়েছিলেন, তাঁর মন্ত্রক সার্ভিস চার্জ সংক্রান্ত একটি নির্দেশিকা তৈরি করে প্রধানমন্ত্রীর দফতরের কাছে অনুমোদনের জন্য পাঠিয়েছে। শুক্রাবার সেই নির্দেশিকাতেই অনুমোদন দিল পিএমও।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here