শাহিনবাগের মতো জনসাধারণের জায়গা প্রতিবাদের জন্য দখলে রাখা গ্রহণযোগ্য নয়: সুপ্রিম কোর্ট

0

নয়াদিল্লি: প্রতিবাদ জানাতে অনির্দিষ্টকালের জন্য শাহিনবাগের মতো জনসাধারণের জায়গা দখল করা মোটেই গ্রহণযোগ্য নয় বলে বুধবার একটি মামলায় নির্দেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট।

নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন (CAA)-এর বিরুদ্ধে প্রতিবাদের সময় দিল্লির শাহিনবাগে (Shaheen Bagh) যে ভাবে রাস্তা আটকে মাসের পর মাস প্রতিবাদ হয়েছিল, সেই প্রসঙ্গেই এই মন্তব্য করল শীর্ষ আদালত।

বিচারক সঞ্জয় কৌলের নেতৃত্বাধীন তিন সদস্যের বেঞ্চ এ দিন জানায়, গণতন্ত্রে বিক্ষোভ খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়। কিন্তু সেটা নির্দিষ্ট স্থানে করতে হবে। জনগণের জন্য চিহ্নিত এলাকা দখল করে এ ভাবে প্রতিবাদ মেনে নেওয়া যায় না। এ ধরনের ঘটনা ঘটলে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের উচিত প্রতিবাদীদের অন্যত্র সরে যাওয়ার ব্যবস্থা করা।

সুপ্রিম কোর্টের (Supreme Court) বিচারপতি সঞ্জয় কৌল, অনিরুদ্ধ বসু এবং কৃষ্ণ মুরারীর বেঞ্চ বলে, “আমরা এই বিষয়টা পরিষ্কার করে দিতে চাই যে, শাহিনবাগে (দিল্লিতে) বা অন্য কোথাও জনসাধারণের জায়গা অনির্দিষ্টকালের জন্য দখল করা যাবে না। এই ধরনের প্রতিবাদগুলি (শাহিনবাগের মতো) গ্রহণযোগ্য নয় এবং কর্তৃপক্ষের অবশ্যই নির্দিষ্ট পদক্ষেপ নেওয়া উচিত। তাঁদের অবশ্যই নজর রাখতে”।

মামলাটির রায় দিতে গিয়ে শীর্ষ আদালত স্পষ্ট ভাবেই জানিয়ে দেয়, “একটি সাধারণ অঞ্চলে অনির্দিষ্টকালের বিক্ষোভ অন্যদের জন্য অসুবিধা সৃষ্টি করে”। একই সঙ্গে বলা হয়, “বিক্ষোভ দেখানো নাগরিকদের অধিকার। আমরা শান্তিপূর্ণ ভাবে প্রতিবাদের অধিকারের প্রশংসা করি এবং সেটা শুধু নির্ধারিত স্থানেই অনুষ্ঠিত হতে পারে”।

প্রসঙ্গত, গত ২০১৯ সালে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে উত্তাল হয়ে ওঠে গোটা দেশ। দিল্লির শাহিনবাগে গত বছরের ডিসেম্বর থেকে চলতি বছরের মার্চ মাস পর্যন্ত আন্দোলন চলে। সিএএ-র প্রতিবাদে ওই ধরনায় জড়ো হন মহিলা এবং শিশুরাও। তবে করোনাভাইরাস মহামারির জেরে সেই ধরনা কর্মসূচি প্রত্যাহার করা হয়। কিন্তু প্রতীকী আন্দোলন এখনও চলছে।

আরও পড়তে পারেন: অবশেষে জামিন পেলেন রিয়া চক্রবর্তী

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন