japanese prime minister shinzo abe

অমদাবাদ: ‘তাঁর প্রিয় বন্ধু’ ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে দূরদৃষ্টিসম্পন্ন বিশ্বনেতা বলে সম্বোধন করলেন জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে। মোদীর স্বপ্নের প্রকল্পের শিলান্যাস করে জাপানের প্রধানমন্ত্রী বলেন, শক্তিশালী ভারত যেমন জাপানের পক্ষে উপকারী, তেমনই ভারতের পক্ষে উপকারী শক্তিশালী জাপান। ভারতের প্রধানমন্ত্রী বলেন, বুলেট ট্রেন প্রকল্প ভারতের উন্নতিতে যোগ করবে বেগ।

বৃহস্পতিবার সকালে অমদাবাদ-মুম্বই বুলেট ট্রেন প্রকল্পের যৌথভাবে শিলান্যাস করেন নরেন্দ্র মোদী ও শিনজো আবে। ‘নমস্কার’ বলে বক্তৃতা শুরু করেন জাপানের প্রধানমন্ত্রী।

আরও পড়ুন: ১৪ সেপ্টেম্বর মোদী-শিনজোর হাতে অমদাবাদে সূচনা হবে বুলেট ট্রেন প্রকল্পের

আবে বলেন, ঠিক দশ বছর আগে ভারতের সংসদে ভাষণ দেওয়ার সৌভাগ্য হয়েছিল তাঁর। এখন তিনি ভারত ও জাপানের জন্য একটা উজ্জ্বল ভবিষ্যতের ছবি দেখতে পাচ্ছেন। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের ঠিক পরে জাপান ছিল একটা জ্বলেপুড়ে যাওয়া দেশ। তার পর থেকেই সে দেশে উন্নয়ন যজ্ঞ শুরু হয়। শেষ পর্যন্ত সেখানে বুলেট ট্রেন চালু হয়।

জাপানের প্রধানমন্ত্রী জানান, ভারতে বুলেট ট্রেন প্রকল্প সফল করার জন্য জাপানি ইঞ্জিনিয়াররা দিনরাত এক করে খাটছেন। ভারত ও জাপানের মানুষ যদি এক যোগে কাজ করে তা হলে এমন কোনো কিছুই থাকবে না, যা পূরণ করা যাবে না। তিনি আশা করেন, আবার যখন অমদাবাদ আসবেন তখন বুলেট ট্রেনে চড়তে পারবেন।

আবে বলেন, জাপানের ‘জেএ’ আর ইন্ডিয়ার ‘আই’ নিয়ে হয় ‘জেএআই’ অর্থাৎ ‘জয়’। ধন্যবাদ বলে বক্তব্য শেষ করেন জাপানের প্রধানমন্ত্রী।

ওই অনুষ্ঠানে ভারতের প্রধানমন্ত্রী বলেন, বুলেট ট্রেন প্রকল্পের ফলে মানুষের সঙ্গে জায়গার দূরত্ব কমে যাবে এবং যোগাযোগ ব্যবস্থা অতি দ্রুত হবে বলে উৎপাদনশীলতা বাড়বে। জাপানের ভূয়সী প্রশংসা করে মোদী বলেন, জাপান এমনই একটা বন্ধু যারা এই প্রকল্পের জন্য মাত্র ০.১% সুদের হারে ৮৮ হাজার কোটি টাকা ঋণ দিচ্ছে।

অমদাবাদে শিলান্যাস অনুষ্ঠানে কেন্দ্রীয় রেলমন্ত্রী পীযূষ গয়াল, গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী বিজয় রুপানি এবং মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়নবীশ উপস্থিত ছিলেন।

অমদাবাদে বুলেট ট্রেন প্রকল্পের শিলান্যাসের আগে বডোদরায় (বরোদা) একটি ইনস্টিটিউটের শিলান্যাস করেন মোদী ও আবে। ওই ইনস্টিটিউটে বুলেট ট্রেন প্রকল্পের জন্য চার হাজার কর্মীকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here