banglow

ওয়েবডেস্ক: উত্তরপ্রদেশের প্রাক্তন দুই মুখ্যমন্ত্রী মুলায়ম সিংযাদব এবং তাঁর পুত্র অখিলেশের ছেড়ে দেওয়া সরকারি বাসভবন চেয়ে আবেদন করেছিলেন সে রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী সিদ্ধার্থনাথ সিং।

গত ৩১ মে, উত্তরপ্রদেশের মুখ্যসচিবের কাছে চিঠি দিয়ে সিদ্ধার্থনাথ আবেদনে লিখেছেন, হয় অখিলেশের ছেড়ে দেওয়া বাংলো নম্বর -৪ তাঁর জন্য বরাদ্দ করা হোক। আর তা না সম্ভব হলে অতীতে মুলায়মের ব্যবহৃত ৫ নম্বর বাংলোটি তাঁকে দেওয়া হোক। দু’টি বাংলোই লখনউয়ের বিক্রমাদিত্য মার্গে অবস্থিত।

সিদ্ধার্থনাথ ওই চিঠিতে লিখেছেন, তাঁর জন্য বর্তমানে বরাদ্দকৃত বাংলোটিতে কাজ চালাতে অসুবিধা হচ্ছে। নিজেদের দফতরের কর্মী-সহ দর্শনার্থীদের জন্য পর্যাপ্ত নয় ওই বাংলোটির আয়তন। আশ্চর্যজনক ভাবে অখিলেশ এবং মুলায়মের কাছে বাংলো ছেড়ে দেওয়ার নির্দেশিকা পাঠানোর পর তাঁরা সুপ্রিম কোর্টের কথা এই ধরনের যুক্তিই তুলে ধরেছিলেন। তাঁরা ধারণা করেছিলেন, দ্রুত বাংলো খালি করানোর নেপথ্যে রয়েছে এই কারণটিই।

সুপ্রিম কোর্ট অবশ্য প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীকে যথাযথ বাসস্থান সন্ধানের জন্য পর্যাপ্ত সময় দিয়েছিল। কিন্তু অখিলেশ গত ৯ জুন নিজের বাংলোটি ছেড়ে দেন। সে সময় বেশ কিছু পুনর্নিমার্ণের কাজ নিয়েও যথেষ্ট বিতর্কের সৃষ্টি হয়। কারণ হিসাবে তিনি বলেছিলেন, তিনি নিজের টাকায় বেশ কিছু সংস্কার করেছিলেন ওই সরকারি বাংলোয়।

তবে তার অনেক আগেই বাংলোটি চেয়ে সে রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রীর আবেদন ঘিরে নতুন করে জল ঘোলা হতে শুরু করেছে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here