অমৃতসর: একজন নাম না করেও সন্ত্রাসবাদের ‘মদতদাতা’ হিসাবে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার অহ্বান জানালেন, আর অন্যজন পাকিস্তানের নাম করে সরাসরি তাকে সন্ত্রাসবাদের মদত দেওয়া বন্ধ করতে আহ্বান জানালেন। স্থান অমৃতসরের ‘হার্ট অফ এশিয়া’ সম্মেলন। প্রথমজন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আর দ্বিতীয় জন আফগানিস্তানের প্রেসিডেন্ট আশরফ গনি।

সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেন, সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে নীরবতা ও নিষ্ক্রিয়তা আসলে সন্ত্রাসবাদী ও তাদের প্রভুদের উৎসাহিত করে। সন্ত্রাসবাদকে বন্ধ করতে হলে শুধু সন্ত্রাসবাদী নয়, যারা জঙ্গিদের মদত, আশ্রয়, প্রশিক্ষণ ও আর্থিক সাহায্য দেয়,তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবে।

আফগান প্রেসিডেন্ট আশরফ গনি বলেন যুদ্ধ বিধ্বস্ত দেশের পুনর্গঠনে ‘৫কোটি টাকা অর্থ সাহায্য দিয়েছে পাকিস্তান। তার জন্য ধন্যবাদ। টাকাটা আমাদের দিতে হবে না, ওটা জঙ্গি দমনে খরচ করুন। উন্নয়নে অর্থ সাহায্য করার কোনও মানে থাকে না যদি পাকিস্তান জঙ্গিদের মদত দেওয়া অব্যাহত রাখে।’

এর জবাব অবশ্য দিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা সরতাজ আজিজ। সম্মেলনে তিনি পাকিস্তানের প্রতিনিধিত্ব করছিলেন। আজিজ বলেন, ‘কোনও নির্দিষ্ট একটি দেশের দিকে আঙুল না তুলে এ নিয়ে আমাদের আরও বাস্তবমুখী হতে হবে।’

আফগানিস্তানের পট বদলের পর সে দেশে রাজনৈতিক এবং অর্থনৈতিক স্থিতিশীলতা ফেরানোর লক্ষ্যে ২০০১ সালে ‘হার্ট অফ এশিয়া’ তৈরি হয়। তার পর থেকে প্রতি বছর বিভিন্ন সদস্য দেশে ‘হার্ট অফ এশিয়া’-র সম্মেলন হচ্ছে।  আফগানিস্তান এই সংগঠনের স্থায়ী প্রধান।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here