চিন বলল পরিস্থিতি মোদী-জিংপিং বৈঠকের সহায়ক নয়, ভারত বলল তারা তো বৈঠক চায়নি

0
494
modi-xingping

বেজিং: বর্তমান পরিস্থিতি বৈঠকের সহায়ক নয়, তাই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং চিনা প্রেসিডেন্ট ঝি জিংপিং-এর সাক্ষাতের সম্ভাবনা উড়িয়ে দিল চিনা বিদেশমন্ত্রক। সিকিমে তৈরি হওয়া জটিলতা দু’দেশের সম্পর্ককে নষ্ট করে দিয়েছে বলে দাবি বিদেশমন্ত্রকের। ভারত পালটা জানিয়ে দিয়েছে, তারা তো মোদী-জিংপিং বৈঠকের কোনো কথাই বলেনি।

শুক্রবার জার্মানিতে শুরু হচ্ছে জি-২০ সম্মেলন। সেই সম্মেলনের বাইরে ৭ এবং ৮ জুলাই আলাদা ভাবে বৈঠকে বসার কথা ব্রিক্স (ব্রাজিল, রাশিয়া, ভারত, দক্ষিণ আফ্রিকা এবং চিন) রাষ্ট্রপ্রধানদের। চিনের তরফ থেকে বৈঠকের সম্ভাবনার কথা উড়িয়ে দেওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে ভারত জানিয়েছে এ রকম কোনো বৈঠকের সম্ভাবনা কখনোই তৈরি হয়নি। মোদীর সঙ্গে ইজরায়েল সফররত এক ভারতীয় আধিকারিক নাম গোপন রাখার শর্তে হিন্দুস্তান টাইমসকে বলেছেন, “আমরা তো এ ধরনের কোনো বৈঠক চাই-ইনি, তা হলে পরিস্থিতি সহায়ক কি সহায়ক নয়, এ প্রশ্ন আসছে কোথা থেকে?”

চিন জানিয়েছে, সিকিমের ডকলাম অঞ্চলে তৈরি হওয়া জটিলতা তখনই মিটতে পারে, যদি ভারত সেনা প্রত্যাহার করার সিদ্ধান্ত নেয়। এই জটিলতা নিয়ে চিনা বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র গেং শুয়াঙ বলেন, “অঞ্চলের শান্তি বজায় রাখার জন্য ভারতের অবিলম্বে সেনা প্রত্যাহার করতে হবে।” দু’দেশের বৈঠকের জন্য সেটাই যে একমাত্র শর্ত সেটাও বলেন ওই মুখপাত্র।

কিছু দিন আগেই সীমান্তকে কেন্দ্র করে চলতে থাকা উত্তেজনার আঁচ আরও বাড়িয়ে দিয়ে চিনের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যমে এক বিশেষজ্ঞ দাবি করেছিলেন, “ভারত যদি ১৯৬২ সালে ‘ঐতিহাসিক ভুল’ থেকে শিক্ষা না নেয়, তা হলে সামরিক আগ্রাসনের পথ বেছে নেওয়া হতে পারে।”

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here