amit shah

ওয়েবডেস্ক:  এক নয়, একাধিকবার দলের বিপক্ষেই প্রকাশ্য সভায় মন্তব্য করেছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ। সে সব নিয়ে হইচই হয়েছে তুমুল। তবে তিনি যে দমে যাননি, তা স্পষ্ট করে দিলেন শুক্রবারের দুপুরে মায়সুরুর (মহীশুর) রাজপ্রাসাদে গিয়ে।

অমিত এ দিন বলেন, “আমি ‘স্লিপ অব টাং’ করে সিদ্দারামাইয়া সরকারের পরিবর্তে বলে ফেলেছিলাম যে, ইয়েদুরাপ্পা সরকার কর্নাটকের সব থেকে দুর্নীতিগ্রস্ত সরকার। এই কথা শুনে জাতীয় কংগ্রেস খুব মজা করেছে। কিন্তু আমি বলতে চাই, আমি যে ভুল করেছি কর্নাটকের মানুষ সেই ভুল কিন্তু করবে না।”

আরও পড়ুন: অমিত শাহের বিরাট ‘গুবলেট’, অস্ত্র পেয়ে গেল কংগ্রেস, কী বলেছেন অমিত

উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার প্রকাশ্য সভায় নিজের দলের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী সম্পর্কে বিরূপ মন্তব্য করে ফেলার পর থেকে অমিত সাংবাদিকদের এড়িয়ে চলছিলেন।যদিও তিনি এখনও পর্যন্ত কর্নাটক বিধানসভা ভোটের প্রচারে কর্নাটকেই রয়েছেন। তবে তাঁকে এখনও তাড়া করে বেড়াচ্ছে সেই ‘গুবলেট’ অস্ত্র, যা তাঁরই সৌজন্যে উঠে গিয়েছিল রাহুল গান্ধীর কংগ্রেসের হাতে।

মঙ্গলবার অমিত মন্তব্য করেন, “সম্প্রতি সুপ্রিম কোর্টের এক অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি বলেছেন, দেশের সব থেকে দুর্নীতিগ্রস্ত রাজ্য সরকার বাছাইয়ের কোনো প্রতিযোগিতা করা হলে দেখা যাবে তাতে প্রথম স্থান অধিকার করবে কর্নাটকের ইয়েদুরাপ্পা সরকার।” তিনি যখন এ কথা বলছেন তখন তাঁর পাশেই বসে ছিলেন প্রাক্তন ওই মুখ্যমন্ত্রী।

আরও পড়ুন: ‘মোদী গরিব ও দলিত বিরোধী’ কর্নাটকে এ কী বলে ফেললেন অমিত শাহ?

এখানেই শেষ নয়, তিনি ফের বলেন, কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রীই খনি দুর্নীতি-কাণ্ডে জড়িয়ে গিয়ে লোকায়ুক্তের কাছে অভিযুক্ত সাব্যস্ত হয়েছিলেন। আদতে ওই মুখ্যমন্ত্রী ছিল বিজেপির-ই, এবং তিনি অন্য কেউ নন, ইয়েদুরাপ্পাই।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here