badrinath town
বরফে ঢাকা বদরীনাথ শহর।

ওয়েবডেস্ক: গত দু’-তিন দিন প্রবল তুষারপাতের পরে ধীরে ধীরে স্বাভাবিকের পথে কাশ্মীর এবং উত্তরাখণ্ড। আবহাওয়া পরিষ্কার হওয়ায় স্থানীয় বাসিন্দাদের পাশাপাশি পর্যটকরাও স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছেন।

গত শুক্রবার রাত থেকেই আবহাওয়া বদলাতে শুরু করে কাশ্মীর, হিমাচল এবং উত্তরাখণ্ডে। শনিবার সকাল থেকে শুরু হয় প্রবল তুষারপাত। তুষারপাত এতটাই প্রবল ছিল যে শ্রীনগর-জম্মু এবং শ্রীনগর-লেহ জাতীয় সড়কের ওপরে যান চলাচল বন্ধ করে দিতে হয়। স্থানীয় বাসিন্দা এবং পর্যটক-সহ আটকে পড়েন প্রায় সাতশো মানুষ। রবিবার রাতেই সবাইকে নিরাপদে উদ্ধার করা হয়।

শুধু কাশ্মীর নয়, উত্তরাখণ্ডের কেদার-বদরী অঞ্চলেও ব্যাপক তুষারপাত হয়। এই তুষারপাতের ফলে বদরীনাথের পথে যান চলাচল কিছুটা ব্যাহত হয়। তবে রবিবার থেকে আবহাওয়ার উন্নতি হতে শুরু করায় ফের রাস্তা খুলে দেওয়া হয়।

এই আবহাওয়ার জন্য সব থেকে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন কাশ্মীরের আপেল চাষিরা। বরফের ফলে নষ্ট হয়ে গিয়েছে ফসল। সরকারের তরফ থেকে উপযুক্ত ক্ষতিপূরণ দাবি করেছেন চাষিরা।

তবে এই আবহাওয়া সব থেকে বেশি চিন্তা বাড়িয়েছে আবহাওয়া বিজ্ঞানীদের। এই প্রবল তুষারপাত জলবায়ু পরিবর্তনের ইঙ্গিত কি না সেই ব্যাপারে চর্চা শুরু হয়ে গিয়েছে। স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি, নভেম্বরের শুরুতেই কখনও এ রকম তুষারপাত হয় না।

সবার এখন প্রশ্ন এখনই যখন এ রকম তুষারপাত হয়েছে তখন শীতে কী হবে?

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here