কোভিডে মৃত প্রত্যেকের পরিবারকে ৫০ হাজার টাকা ক্ষতিপূরণ দেবে রাজ্য, সুপ্রিম কোর্টে জানাল কেন্দ্র

0

নয়াদিল্লি: কোভিডে মৃত প্রত্যেকের পরিবারকে ৫০ হাজার টাকা করে আর্থিক ক্ষতিপূরণ দিতে হবে রাজ্য সরকারকে। শুধুমাত্র যাঁরা ইতিমধ্যেই মারা গিয়েছেন, তাঁদের জন্যই নয়, ভবিষ্যতের জন্যও এই ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে বলে সুপ্রিম কোর্টে জানাল কেন্দ্রীয় সরকার।

ক্ষতিপূরণ দেবে রাজ্য সরকার

কোভিডে মৃতের পরিবারকে কী পরিমাণ ক্ষতিপূরণ দেওয়া যেতে পারে, তা নির্ধারণে জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা বিভাগকে বিষয়টি খতিয়ে দেখার নির্দেশ দিয়েছিল সর্বোচ্চ আদালত। বুধবার আদালতে দায়ের করা হলফনামায় কেন্দ্র জানিয়েছে, এই টাকা রাজ্য সরকারগুলি নিজের নিজের বিপর্যয় মোকাবিলা তহবিল থেকে খরচ করবে। আর্থিক ক্ষতিপূরণ পাঠানো হবে জেলা বিপর্যয় ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ বা জেলা প্রশাসনের মাধ্যমে।

২০২০ সালের জানুয়ারিতে করোনা মহামারি শুরু হওয়ার পর থেকে ভারতে এখনও পর্যন্ত প্রায় ৪.৪৫ লক্ষ মানুষ কোভিডে মারা গিয়েছেন। কিছু রাজ্য ইতিমধ্যেই মৃতদের পরিবারের জন্য ক্ষতিপূরণ ঘোষণা করেছে। এই রাজ্যগুলির মধ্যে উল্লেখযোগ্য বিহার (পরিবার প্রতি ৪ লক্ষ টাকা), মধ্যপ্রদেশ (১ লক্ষ টাকা) এবং দিল্লি (৫০ হাজার টাকা)।

ক্ষতিপূরণ কী ভাবে পাওয়া যাবে?

রাজ্য সরকারের জারি করা একটি আবেদনপত্রের মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট পরিবার আর্থিক ক্ষতিপূরণের জন্য দাবি জানাবে। এর সঙ্গে থাকতে হবে কোভিডে মৃত ব্যক্তির মৃত্যু শংসাপত্র।

সেই আবেদনপত্র পাওয়ার পর জেলা প্রশাসন সেটির যাচাই এবং অনুমোদন করবে। আর্থিক ক্ষতিপূরণ যাতে আবেদনকারী পরিবারের হাতে দ্রুত পৌঁছায়, সে ব্যবস্থাও করবে প্রশাসন।

কেন্দ্রের হলফনামায় আরও বলা হয়েছে, “প্রয়োজনীয় কাগজপত্র জমা দেওয়ার ৩০ দিনের মধ্যে সমস্ত দাবি নিষ্পত্তি করতে হবে এবং আধার কার্ডের ভিত্তিতে ক্ষতিপূরণের টাকা সরাসরি স্থানান্তরিত করতে হবে”।

অভিযোগ উঠলে কী হবে?

কোনো অভিযোগ উঠলে তা খতিয়ে দেখবে অতিরিক্ত জেলাশাসক, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা (সিএমওএইচ), অতিরিক্ত সিএমওএইচ অথবা মেডিক্যাল কলেজের মেডিসিন বিভাগের অধ্যক্ষ এবং একজন বিষয় বিশেষজ্ঞের কমিটি।

অভিযোগের প্রতিকার মূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সত্যতা যাচাই করে সরকারি নথি-সহ তার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে ওই কমিটি। কেন্দ্রের হলফনামায় বলা হয়েছে, “যদি কমিটির সিদ্ধান্ত দাবিদারের পক্ষে না যায়, সে ক্ষেত্রে একটি লিখিত জবাবও দিতে হবে”।

আজকের উল্লেখযোগ্য আরও কিছু খবর পড়তে পারেন এখানে:

দৈনিক সংক্রমণ বাড়লেও পুজোর মুখে মোটের ওপর স্থিতাবস্থা পশ্চিমবঙ্গের করোনাগ্রাফে

ধন্ধুমার কাণ্ড! ঘন ঘন লোডশেডিং, অস্বাভাবিক বিদ্যুৎ বিলের প্রতিবাদে জয়নগরে রাস্তা অবরোধ

আমি না জিতলে অন্য কেউ মুখ্যমন্ত্রী হবেন, আমাকে রাখতে ভোট দিন: মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

১২ বছর পর পেনশন চালু হল ইরা বসুর, মমতা-অভিষেককে ধন্যবাদ জানিয়ে ‘বিশেষ লোকের নামে চলাফেরা’র অপবাদ নিয়েও সরব

স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়ের তলবে বিধানসভায় হাজিরা এড়াল ইডি, সিবিআই

স্বীকৃতি মিললেও কোভিশিল্ডের দু’টি ডোজ নেওয়া ভারতীয়দের নিভৃতবাসেই থাকতে হবে, জানাল ব্রিটেন

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পাড়ায় গিয়ে বাধা, পুলিশকে ‘পিসি সার্ভিস’ বললেন বিজেপির নতুন রাজ্য সভাপতি

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন