নয়াদিল্লি: দেশব্যাপী প্রতিভা অন্বেষণ। ডেইলিহান্ট (Dailyhunt) এবং এএমজি মিডিয়া নেটওয়ার্ক লিমিটেডের (AMG Media Networks Limited) ট্যালেন্ট হান্ট প্রতিযোগিতা #StoryForGlory-এর চূড়ান্ত পর্বে বিজয়ী হলেন ১২ জন প্রতিযোগী।

ভারতের প্রথম স্থানীয় ভাষায় কনটেন্ট প্ল্যাটফর্ম ডেইলিহান্ট এবং আদানি গ্রুপের মালিকানাধীন এএমজি মিডিয়া নেটওয়ার্ক লিমিটেডের আয়োজিত জাতীয় স্তরের এই প্রতিভা অন্বেষণ প্রতিযোগিতাটি সম্পূর্ণ হল বুধবার, নয়াদিল্লিতে। ভিডিও ও প্রিন্ট ক্যাটাগরিতে আয়োজিত এই ট্যালেন্ট হান্টে জিতেছেন ১২ জন প্রতিযোগী।

চার মাসব্যাপী কর্মসূচিতে হাজারেরও বেশি আবেদন!

গত মে মাসে শুরু হয়েছিল এই প্রতিযোগিতা। চার মাসব্যাপী কর্মসূচিতে হাজারেরও বেশি আবেদন জমা পড়েছিল। তাঁদের মধ্যে ২০ জন প্রতিভাবান অংশগ্রহণকারীকে চূড়ান্ত পর্বের জন্য বাছাই করা হয়। সংক্ষিপ্ত তালিকাভুক্ত প্রার্থীরা একটি শীর্ষস্থানীয় মিডিয়া ইনস্টিটিউট এমআইসিএ-তে আট সপ্তাহের দীর্ঘ ফেলোশিপ এবং দু’সপ্তাহের প্রশিক্ষণে অংশ নেন। তাঁদের কঠোর প্রশিক্ষণের পর অংশগ্রহণকারীরা নিজেদের চূড়ান্ত প্রকল্পে ছ’সপ্তাহ কাজ করেন। এই সময়ে তাঁরা বিভিন্ন বড়ো মিডিয়া হাউসের পরামর্শও পান। নিজেদের দক্ষতা বৃদ্ধির পাশাপাশি লেখার কৌশল রপ্ত করার সুযোগ পান তাঁরা।

গ্র্যান্ড ফিনালেতে ২০ জন ফাইনালিস্ট প্রজেক্ট উপস্থাপন করেন। তাঁদের মধ্যে থেকেই ১২ জনকে বেছে নেয় বিচারকমণ্ডলী। বিচারকমণ্ডলীতে ছিলেন ডেইলিহান্টের প্রতিষ্ঠাতা বীরেন্দ্র গুপ্তা, এএমজি মিডিয়া নেটওয়ার্ক লিমিটেডের সিইও ও এডিটর-ইন-চিফ সঞ্জয় পুগলিয়া, দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের এগ্‌জিকিউটিভ ডিরেক্টর অনন্ত গোয়েঙ্কা, ফিল্ম কম্প্যানিয়নের প্রতিষ্ঠাতা অনুপমা চোপড়া, SheThePeople-এর প্রতিষ্ঠাতা শেলি চোপড়া, গাঁও সংযোগের প্রতিষ্ঠাতা নীলেশ মিশ্র এবং ফ্যাক্টর ডেইলির সহ-প্রতিষ্ঠাতা পঙ্কজ মিশ্র।

কী এই StoryForGlory

আয়োজকদের মতে, জনগণের কথা শুনতে এবং প্রতিযোগীদের সাংবাদিকতার ক্ষেত্রে কেরিয়ার গড়তে সাহায্য করবে #StoryForGlory। ডেইলিহান্টের প্রতিষ্ঠাতা বীরেন্দ্র গুপ্তা বলেন, “ডিজিটাল সংবাদ এবং মিডিয়ায় গল্প বলার ধরণটি দ্রুত পরিবর্তিত হচ্ছে। #StoryForGlory-এর মতো প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে ভারতীয় মিডিয়া ইকোসিস্টেমকে আমরা আরও উন্নত করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। এর পাশাপাশি, আমরা নতুন প্রতিভাদের দক্ষতার বিকাশ এবং বিশ্বের সঙ্গে তাঁদের আবেগ ভাগ করে নেওয়ার সুযোগও করে দিচ্ছি”।

এএমজি মিডিয়া নেটওয়ার্ক লিমিটেডের সিইও ও এডিটর-ইন-চিফ সঞ্জয় পুগলিয়া বলেন, “সমৃদ্ধ এবং বৈচিত্র্যময় গল্পের দেশ হিসাবে পরিচিক ভারত। ডেইলিহান্টের সঙ্গে, আমরা ভারতের পরবর্তী প্রজন্মকে চিহ্নিত করতে সক্ষম হয়েছি এবং তাঁদের দক্ষতা বাড়াতে ও কাজের জন্য প্রয়োজনীয় সঠিক সমর্থন এবং প্ল্যাটফর্ম দিতে পেরেছি। #StoryforGlory-এর মাধ্যমে আমরা বিশ্বের কাছে এবং ভারতের প্রতিভাবানদের কাছে দুর্দান্ত কন্টেন্ট নিয়ে আসার সুযোগ পেয়েছি। দেশের পরবর্তী প্রজন্মকে সঠিক প্ল্যাটফর্ম দেওয়ার লক্ষ্যেই আমাদের এই প্রচেষ্টা”।

খবর অনলাইন-এ আরও পড়ুন:

হিজাব বিরোধী বিক্ষোভ তুঙ্গে, ‘লক্ষ্মণ রেখা’ টেনে দিলেন ইরানের প্রেসিডেন্ট

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন