মঙ্গলবারের ধর্মঘটে ব্যাহত হতে পারে কমপক্ষে ৪টি ব্যাঙ্কের পরিষেবা

0
Bank Strike
প্রতীকী ছবি

ওয়েবডেস্ক: ২২ অক্টোবর দু’টি বৃহত্তর ব্যাঙ্ক ইউনিয়নের ডাকা সারা ভারত ব্যাঙ্ক ধর্মঘটের কারণে ব্যাঙ্কিং পরিষেবা ব্যাহত হওয়ার আশঙ্কা সৃষ্টি হল চারটি বৃহৎ রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কে। ১০টি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ককে একত্রীভূত করে চারটি ব্যাঙ্কে পরিণত করার কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ-সহ একাধিক ইস্যুতে আগামী মঙ্গলবার ভারতজোড়া ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে ওই দুই সংগঠন।

ইতিমধ্যেই ওরিয়েন্টাল ব্যাঙ্ক অব কমার্স, ব্যাঙ্ক অব মহারাষ্ট্র, সিন্ডিকেট ব্যাঙ্ক এবং ব্যাঙ্ক অব বরোদার পক্ষ থেকে ধর্মঘটের জেরে পরিষেবা ব্যাহত হওয়ার আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে। প্রস্তাবিত ধর্মঘট পালিত হলে গ্রাহক পরিষেবা অব্যাহত রাখার পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে এই ব্যাঙ্কগুলির তরফে। যদিও তা পর্যাপ্ত নয় বলেও পাশাপাশি জানানো হয়েছে।

ব্যাঙ্ক অব বরোদা এমনিতে দেশের তৃতীয় বৃহত্তম রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ক। সারা দেশে প্রায় সাড়ে ন’হাজার শাখা রয়েছে এই ব্যাঙ্কের। স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া (এসবিআই) এবং পঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্ক (পিএনবি)-র পরেই রয়েছে ব্যাঙ্ক অব বরোদা।

অন্যান্য ব্যাঙ্ক, যেমন সিন্ডিকেট ব্যাঙ্ক, ব্যাঙ্ক অব মহারাষ্ট্র এবং ওরিয়েন্টাল ব্যাঙ্ক অব কমার্সের গ্রাহক পরিষেবা ব্যাহত হওয়ার উদ্বেগ প্রকাশ করেছে।

বৃহত্তম ব্যাঙ্ক ইউনিয়ন অল ইন্ডিয়া ব্যাঙ্ক এমপ্লয়িজ অ্যাসোসিয়েশন (এআইবিইএ) এবং ব্যাঙ্ক এমপ্লয়িজ ফেডারেশন অব ইন্ডিয়া (বিইএফআই) ব্যাঙ্ক সংযুক্তিকরণ এবং আমানতের হার হ্রাসের প্রতিবাদ জানিয়ে ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে।

স্টক এক্সচেঞ্জের কাছে এক বিজ্ঞপ্তিতে সিন্ডিকেট ব্যাঙ্ক জানিয়েছে, “প্রস্তাবিত ধর্মঘটের দিন ব্যাঙ্কের শাখাগুলি সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে। তবে এই ধর্মঘটের ফলে শাখা / অফিসগুলির কার্যকারিতা ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে”।

একই রকম ভাবে ওরিয়েন্টাল ব্যাঙ্ক অব কমার্সের পক্ষেও জানানো হয়েছে, এআইবিইএ এবং বিইএফআইয়ের ডাকা আগামী মঙ্গলবারের ধর্মঘট বাস্তবায়িত হলে ব্যাঙ্কের স্বাভাবিক পরিষেবা ব্যাহত হতে পারে।

যদিও দেশের বৃহত্তম রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ক এসবিআই জানিয়েছে, তাদের সিংহভাগ কর্মী ওই দু’টি ইউনিয়নের সদস্য না হওয়ায় পরিষেবায় ন্যূনতম প্রভাব পড়তে পারে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.