Supreme-Court
সুপ্রিম কোর্ট। ফাইল ছবি

নয়াদিল্লি: অসমের নাগরিকপঞ্জি সংক্রান্ত মামলায় বৃহস্পতিবার সর্বোচ্চ আদালত কো-অর্ডিনেটর প্রতীক হাজেলাকে বাদ পড়া নামের পূর্ণাঙ্গ তথ্য জমা করার নির্দেশ দিল। বলা হয়েছে, কোন কোন জেলায় ঠিক কত শতাংশ মানুষের নাম তালিকা থেকে বাদ পড়েছে তার বিস্তারিত তথ্য জমা করতে হবে। এই মামলার পরবর্তী শুনানি আগামী ২৮ আগস্ট।

এর আগে গত ৭ আগস্টের শুনানিতে সুপ্রিম কোর্ট কো-অর্ডিনেটর প্রতীক এবং এনআরসি জেনারেল শৈলেশকে সংবাদ মাধ্যমের কাছে মন্তব্য করার উপর সতর্কতা জারি করে। সুপ্রিম কোর্টের অনুমতি ব্যতীত নাগরিকপঞ্জি সংক্রান্ত কোনো মন্তব্য না করার নির্দেশ দেওয়া হয় তাঁদের।

এনআরসি মামলায় গঠিত বেঞ্চের তরফে বিচারপতি তরুণ গগৈ বলেন, “আপনাদের দায়িত্ব ছিল ড্রাফট তৈরি করা। সংবাদ মাধ্যমের কাছে বিবৃতি দেওয়ার কোনো দায়িত্ব ছিল না। তা সত্ত্বেও আপনারা সংবাদ মাধ্যমে বলে চলেছেন। এই অধিকার আপনাদের কে দিয়েছে”?

আরও পড়ুন: নাগরিকপঞ্জি নিয়ে এ বার সুপ্রিম কোর্টের দিকেই ‘বল’ ঠেললেন রাজনাথ

জানা যায়, এই ধরনের মন্তব্য প্রকাশের জন্য অভিযুক্তদের হাজতবাস পর্যন্ত হতে পারে। কারণ প্রতীক বা শৈলেশ যে ধরনের মন্তব্য সংবাদ মাধ্যমের সামনে করেছেন, তা যথেষ্ট আপত্তিজনক।

বেঞ্চ বলে, “ভুলে যাবেন না আমাদের (সুপ্রিম কোর্টের) নির্দেশ মতো আপনারা কাজ করছেন। আপনারা আদালতের নিযুক্ত অফিসার। এমন অবস্থান থেকে আপনারা কী ভাবে সংবাদ মাধ্যমের সামনে ব্যক্তিগত বক্তব্য পেশ করছেন”?

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন