কাশ্মীর নিয়ে দায়ের হওয়া আবেদন প্রাথমিক ভাবে ধাক্কা খেল সুপ্রিম কোর্টে

আবেদনের ভিত্তিতে বিচারপতি এমভি রমনা জানিয়েছেন জরুরি ভিত্তিতে নয়, সঠিক সময়েই এই আবেদনের শুনানি শুরু হবে

0
Supreme Court
প্রতীকী ছবি

নয়াদিল্লি: জম্মু-কাশ্মীরের বিভিন্ন এলাকায় যে ভাবে মোবাইল ইন্টারনেট, কেবল পরিষেবা বন্ধ রাখা হয়েছে তার বিরুদ্ধে শীর্ষ আদালতে আবেদন করেছিলেন কংগ্রেস নেতা তথা সমাজকর্মী তেহসিন পুনাওয়ালা। ওই আবেদনে প্রাথমিক ধাক্কা খেয়েছেন তিনি। কারণ এই আবেদনের জন্য জরুরি ভিত্তিতে শুনানির আবেদন করলেও শীর্ষ আদালত সেই আবেদন গ্রাহ্য করেনি।

এই আবেদনের ভিত্তিতে বিচারপতি এমভি রমনা জানিয়েছেন জরুরি ভিত্তিতে নয়, সঠিক সময়েই এই আবেদনের শুনানি শুরু হবে। তবে পুনাওয়ালার আইনজীবী সুহেল মালিক জানিয়েছেন, ৩৭০ অনুচ্ছেদ প্রত্যাহারের বিরুদ্ধে এই আবেদন তিনি করেননি। বরং জম্মু-কাশ্মীরের সাধারণ মানুষের দৈনন্দিন জীবনে সরকার যে ভাবে বাধা আরোপ করেছে, সেটা প্রত্যাহারের আবেদন করেছেন তিনি।

দুই প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ওমর আবদুল্লাহ এবং মেহবুবা মুফতিকে মুক্তি দেওয়ার জন্য আদালত যাতে স্পষ্ট নির্দেশ দেয়, সে ব্যাপারেও আবেদন করেছেন পুনাওয়ালা। পাশাপাশি কাশ্মীরের বর্তমান পরিস্থিতি বোঝার জন্য একটু নিরপেক্ষ কমিটি গঠন করারও আবেদন করেছেন তিনি।

আরও পড়ুন সল্টলেকে অভিনব কায়দায় গাড়ির চাকা চুরি

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার বিকেলের পর সংসদের দুই কক্ষেই জম্মু-কাশ্মীর নিয়ে ঐতিহাসিক দু’টি প্রস্তাব পাশ হয়ে যায়। এক দিকে যেমন অনুচ্ছেদ ৩৭০ বিলোপ করে দেওয়া হয়, অন্য দিকে জম্মু-কাশ্মীর ভেঙে দু’টি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল করে দেওয়া হয়। কিন্তু তার কয়েক দিন আগে থেকেই কাশ্মীর উপত্যকা জুড়ে চরম নিরাপত্তা ব্যবস্থা করা হয়। ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে এবং প্রথম সারির একাধিক রাজনীতিককে গ্রেফতার বা গৃহবন্দি করে রাখা হয়েছে। পাশাপাশি উপত্যকায় যোগাযোগের বিভিন্ন ব্যবস্থাও বন্ধ করে রাখা হয়েছে। ফলে এই মুহূর্তে সেখানে কী পরিস্থিতি, সে ব্যাপারে সঠিক ভাবে কিছু জানা যাচ্ছে না। সেই কারণেই আদালতে এ দিন আবেদন করেছিলেন পুনাওয়ালা।

------------------------------------------------
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.