নয়াদিল্লি : পুনের ৮৯০০ একরের অ্যাম্বি ভ্যালি সিটি নিলাম করার নির্দেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট। সোমবার সহারা মামলার শুনানিতে সর্বোচ্চ আদালত বলে, সহারা-প্রধান সুব্রত রায় ৫০৯২.৬ কোটি টাকা এখনও সেবিকে ফেরত দেননি। ইতিমধ্যে তাঁকে অনেক সময় দেওয়া হয়েছে। কিন্তু তিনি কোর্টের নির্দেশ অমান্য করেছেন। তাই এ বার সেই টাকা শোধ করার জন্য ৩৯ হাজার কোটি টাকা মূল্যের লোনাভালার অ্যাম্বি ভ্যালি সিটি নিলামে তোলার নির্দেশ দিল বিচারপতি দীপক মিশ্র, বিচারপতি রঞ্জন গগৈ ও বিচারপতি এ কে সিকিরির বেঞ্চ। এই সম্পত্তি নিলাম করার ব্যাপারে শীর্ষ আদালত মুম্বই হাইকোর্টের এক আধিকারিককে নিয়োগ করেছে। সম্পত্তি নিলাম করে টাকা সেবির হাতে তুলে দেওয়া হবে। সেবি সেই টাকা আমানতকারীদের তালিকা মিলিয়ে ফেরত দেবে।

 

এর আগে আদালত, সহারা গোষ্ঠীর বৈধ সম্পত্তির একটি তালিকা জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিল, যা নিলাম করে সেবির মারফত আমানতকারীদের টাকা ফেরত দেওয়া যায়। সেইমতোই সোমবার এই নির্দেশ দিল সর্বোচ্চ আদালত।

এ দিন শীর্ষ আদালত সহারা-কর্তাকে ২৭ এপ্রিল আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেয়। আদালত বলে, সুব্রত রায়কে অনেক সুযোগ দেওয়া হয়েছে, আর নয়। এ বার টাকা ফেরত দিতে না পারলে জেলে যেতে হবে।

 

চলতি মাসের শুরুতেই আদালত সহারা গোষ্ঠীকে সতর্ক করে দিয়েছিল, ১৭ এপ্রিলের মধ্যে সেবির কাছে সমস্ত টাকা ফেরত দিতে হবে। এর পর আর অতিরিক্ত সময় দেওয়া হবে না। আর নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে টাকা ফেরত না পেলে অ্যাম্বি ভ্যালি সিটি নিলামে তোলা হবে।

প্রসঙ্গত, ২০১২ সালে আদালত সহারা গোষ্টীকে নির্দেশ দিয়েছিল আমানতকারীদের ২৪ হাজার কোটি টাকা ফেরত দিতে হবে। কিন্তু সেই নির্দেশ না মানার অভিযোগে ২০১৪ সালে সুব্রত রায়-সহ সহারার দু’ জন ডিরেক্টর গ্রেফতার হন। এর পর গত বছর মায়ের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার জন্য সুব্রত রায়কে চার সপ্তাহের শর্তাধীন জামিন দেয় আদালত। তার পর থেকে সেই মেয়াদ ক্রমশ বাড়ানো হয়েছে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here