kumaraswamy, yeddyurappa

বেঙ্গালুরু: সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণের জন্য পনেরো দিন সময় দিয়েছিলেন রাজ্যপাল বজুভাই বালা। কিন্তু শনিবার বিকেলেই কর্নাটক বিধানসভায় আস্থাভোট আয়োজন করার জন্য বিএস ইয়েদিয়ুরাপ্পাকে নির্দেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট। এই নির্দেশের ফলে বিজেপি কিছুটা যে ধাক্কা খাবে তা বলাই বাহুল্য। সেটা আন্দাজ করেই আস্থাভোটের বিরোধিতা করেছেন ইয়েদিয়ুরাপ্পা।

কর্নাটকের ইয়েদিয়রাপ্পার শপথ আটকানোর জন্য বুধবার রাতে সুপ্রিম কোর্টের দারস্থ হয় কংগ্রেস। সুপ্রিম কোর্টের শপথের ওপরে স্থগিতাদেশ না দিলেও জানিয়ে দেয় যতক্ষণ না এই মামলার নিষ্পত্তি হচ্ছে ততক্ষণ কর্নাটকে নতুন সরকার তৈরি হতে পারবে না।

শুক্রবার সেই মামলারই শুনানি ছিল বিচারপতি একে সিকরি, এসএ বোবডে এবং অশোক ভূষণের ডিভিশন বেঞ্চে। শুনানি চলাকালীন জেডিএস এবং কংগ্রেসের আইনজীবীদের আদালত প্রশ্ন করে শনিবারই আস্থা ভোটের জন্য তারা রাজি কি না। আইনজীবীরা জানিয়ে দেয় তারা রাজি। অন্য দিকে এই আস্থাভোটের বিরোধিতা করেন বিজেপির আইনজীবী মুকুল রোহতগি।

এ দিকে শনিবারই আস্থাভোট হতে পারে, সেটা আন্দাজ করে তার বিরোধিতা শুরু করেন বৃহস্পতিবারই মুখ্যমন্ত্রী হওয়া ইয়েদিয়ুরাপ্পা। একটু বেশি সময়ের জন্য বারবার তদ্বির করা শুরু করেন। রোহতগির সেই প্রার্থনা খারিজ করে দিয়ে শনিবার বিকেল ৪টেয় কর্নাটক বিধানসভায় আস্থাভোট আয়োজনের নির্দেশ দেয় শীর্ষ আদালত।

পাশাপাশি যতক্ষণ না নতুন সরকার গঠিত হচ্ছে ততক্ষণ কোনো সরকারি সিদ্ধান্ত নেওয়া থেকে ইয়েদিয়ুরাপ্পাকে বিরত থাকতে বলেছেন তিনি। উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার মুখ্যমন্ত্রীর গদিতে বসেই কর্নাটকের একাধিক আইএএস এবং আইপিএস অফিসারকে বদলি করে দিয়েছেন ইয়েদিয়ুরাপ্পা।

এখন দেখার শনিবার কর্নাটকের নাটক কোন পর্যায়ে পৌঁছোয়।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here