নির্দেশ অমান্য করার জন্য কর্ণাটককে তীব্র ভর্ৎসনা করল সুপ্রিম কোর্ট। শীর্ষ আদালত পরিষ্কার বলে দিয়েছে, আইনের রোষে পড়ার আগেই যেন কর্ণাটক কাবেরীর জল ছাড়া সংক্রান্ত আদালতের নির্দেশ মেনে নেয়।

সুপ্রিম কোর্ট শুক্রবার বলেছে, ২০১৬-এর ১ অক্টোবর থেকে ৬ অক্টোবরের মধ্যে তামিলনাড়ুকে দেওয়ার জন্য কাবেরী থেকে ৬ হাজার কিউসেক জল ছাড়ার শেষ সুযোগ দেওয়া হচ্ছে কর্ণাটককে। এই নির্দেশ না মানলে ‘আইনের রোষে পড়তে হবে রাজ্যকে’। একই সঙ্গে কেন্দ্রকে কোর্ট নির্দেশ দিয়েছে, ৪ অক্টোবরের মধ্যে কাবেরী ওয়াটার ম্যানেজমেন্ট বোর্ড গড়তে হবে, যাতে কাবেরীর গুরুত্বপূর্ণ জায়গাগুলিতে বোর্ড সফর করে প্রকৃত অবস্থাটা বুঝতে পারে। শীর্ষ আদালত পরবর্তী শুনানির দিন ৬ অক্টোবর এ ব্যাপারে একটি রিপোর্ট চেয়েছে।

কর্ণাটককে বিঁধে সুপ্রিম কোর্ট বলেছে, তারা এমন একটা পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছে যেখানে আইনের মর্যাদা ক্ষুণ্ণ হয়েছে। আদালতের নির্দেশ কার্যকর করার জন্য সংবিধানের ১৪৪ অনুচ্ছেদে সুপ্রিম কোর্টকে যে সীমাহীন ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে, সেই অনুসারে বিচারপতি দীপক মিশ্র ও বিচারপতি ইউ ইউ ললিতকে নিয়ে গঠিত বেঞ্চ কর্ণাটককে সতর্ক করে দিয়ে বলেছে, “সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ মানতে তারা বাধ্য।”

৬ হাজার কিউসেক জল ছাড়ার নির্দেশ দিয়ে শীর্ষ আদালত বলেছে, “এই জল ছাড়ার ব্যাপারে আমরা কর্ণাটককে শেষ সুযোগ দিচ্ছি। আমরা বার বার বলছি, জল না ছাড়ার যে প্রস্তাব কর্ণাটক আইনসভার দুই কক্ষে গৃহীত হয়েছে, সেই প্রস্তাব সত্ত্বেও আমরা এই নির্দেশ দিচ্ছি।”     

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here