নির্ভয়াকাণ্ডে ২ সাজাপ্রাপ্তের আবেদন ফেরাল সুপ্রিম কোর্ট

0
ফাইল ছবি

নয়াদিল্লি: মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্টের পাঁচ বিচারপতির বেঞ্চ নির্ভয়াকাণ্ডের দুই দোষীর প্রতিকারমূলক আবেদন নাকচ করে দিল। গত ২০১২ সালে রাজধানী দিল্লিতে একটি চলন্ত বাসে এক প্যারা-মেডিক্যাল পড়ুয়াকে গণধর্ষণের জন্য মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত চার আসামির মধ্যে দু’জন ওই আবেদন জমা দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্টে।

আবেদনটি জানিয়েছিল ছিল বিনয় শর্মা (২৬) এবং মুকেশ কুমার (৩২) নামে দুই সাজাপ্রাপ্ত।

একক আদেশে বিচারপতি এনভি রমনার নেতৃত্বাধীন বেঞ্চ তাদের ফাঁসি রদ এবং মৌখিক শুনানি করা সংক্রান্ত আবেদন নাকচ করে দেয়। পাঁচ বিচারপতির বেঞ্চ জানায়, “আমরা আবেদন এবং প্রাসঙ্গিক নথিগুলি পেরিয়েছি। আমাদের মতে, এ সবের মাপকাঠিতে মধ্যে কোনো মামলা তৈরি করা হয় না … সুতরাং, প্রতিকারমূলক আবেদনগুলি খারিজ করা হয়েছে”।

গত সপ্তাহে দিল্লির পাতিয়ালা হাউস কোর্ট আগামী ২২ জানুয়ারি সকাল ৭টায় মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করার পরোয়ানা জারি করে। তবে সুপ্রিম কোর্ট মুখ ফেরালেও এই চার দোষী এখনও রাষ্ট্রপতি ভবনে প্রাণভিক্ষার আবেদন করতে পারে। রাষ্ট্রপতি তাদের অনুরোধ প্রত্যাখ্যানের পরেই ফাঁসি দেওয়া হতে পারে। কিন্তু মৃত্যুদণ্ডের সাজাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডে পরিণত করার ক্ষমতা রয়েছে রাষ্ট্রপতির।

নির্যাতিতার মা এ দিন শীর্ষ আদালতের বাইরে বলেন, “এটা আমার জন্য বড়ো দিন। আমি গত সাত বছর ধরে লড়াই করে যাচ্ছিলাম”। বছরের পর বছর ধরে তাঁর মেয়ের অত্যাচারীদের বিচারের অপেক্ষা করে গিয়েছেন তিনি।

[ আরও পড়ুন: সিএএ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে বিজেপির রোষে মাইক্রোসফট সিইও নাদেল্লা ]

একই সঙ্গে নির্ভয়ার মা বলেন, “আগামী ২২ জানুয়ারি হবে আমার কাছে সব থেকে বড়ো দিন। যখন তাদের (দোষীদের) ফাঁসি দেওয়া হবে”।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.