বারানসী: অযোধ্যা জমি মামলার ভাগ্য এখনও সুপ্রিম কোর্টের এজলাসে রয়েছে। কিন্তু কিছু হিন্দুত্ববাদী সংগঠন আচার-আচরণের মধ্যে দিয়ে বুঝিয়ে দিচ্ছে আদালতের নির্দেশের জন্য অপেক্ষা করতে রাজি নয় তারা।

এই আবহেই রাম মন্দিরের প্রতীকী শিলান্যাস করলেন জ্যোতিষ এবং শারদা দ্বারকাপীঠের শঙ্করাচার্য স্বামী স্বরূপানন্দ সরস্বতী। বৃহস্পতিবার বারানসীর কেদারঘাটে নিজের আশ্রমে এই শিলান্যাস করেন তিনি।

স্বরূপানন্দ সরস্বতী বারানসীতে প্রতীকী শিলান্যাস করলেও, অযোধ্যায় গিয়ে মন্দিরের শিলান্যাস করে আসেন তাঁর শিষ্য গোবিন্দানন্দ সরস্বতী।

আরও পড়ুন তথাগত রায়ের অপসারণ চাইল সিপিএম

রাম মন্দিরের একটি স্কেচের ওপরে এই প্রতীকী শিলান্যাস করে স্বরূপানন্দ বলেন, “কাম্বোডিয়ার আঙ্করভ্যাট মন্দিরের অনুকরণে অযোধ্যায় একটি বড়ো মন্দির তৈরি করা হবে।” এ ছাড়াও তিনি বলেন, “নির্ধারিত সূচি অনুযায়ী আমি অযোধ্যায় আমার শিষ্যকে পাঠিয়েছি। সে ওখানে মন্দিরের শিলান্যাস করে এসেছে। স্থানীয় পুরোহিতের সঙ্গে সব রীতিনীতি মেনে এই শিলান্যাস হয়েছে।”

অযোধ্যার বিতর্কিত জমি থেকে কিছুটা দূরে রাম মন্দির তৈরি করা হচ্ছে, এমন প্রস্তাবও দিয়েছে কিছু পক্ষ। এই সিদ্ধান্তেরও সমালোচনা করেন স্বরূপানন্দ। তিনি বলেন, “মুল জমি থেকে কিছুটা দূরে রাম মন্দির তৈরি করার একটা চক্রান্ত চলছে। কিন্তু আমরা চাই রামের জন্মস্থানে মন্দির হোক। এতদিন পর্যন্ত এখানে কোনো শিলান্যাস হয়নি, আমরাই সেই কাজটা শুরু করলাম।”

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here