প্রয়োজনীয় সামগ্রী সরবরাহ নিশ্চিত করতে জরুরি পদক্ষেপ গ্রহণের নির্দেশ কেন্দ্রের

নয়াদিল্লি: লকডাউনের মোকাবিলায় দেশে প্রয়োজনীয় সামগ্রী সরবরাহের মসৃণ করতে সমস্ত রকমের প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়ার নির্দেশ দিল কেন্দ্র। রাজ্য সরকারগুলির উদ্দেশে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের ওই নির্দেশে বলা হয়েছে, কালোবাজারি এবং বেআইনি পণ্য মজুত রুখতে প্রয়োজনীয় পণ্য আইন, ১৯৫৫-র প্রয়োগ করা হোক।

করোনাভাইরাসের (Coronavirus) মোকাবিলায় লকডাউনের সময় প্রয়োজনীয় পণ্যগুলির সহজলভ্যতা নিশ্চিত করতে এবং প্রয়োজনীয় পণ্যের কালোবাজারি এবং বেআইনি মজুত রুখতে রাজ্য সরকারগুলির উদ্দেশে লিখিত নির্দেশ পাঠিয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রসচিব অজয় ভাল্লা। মঙ্গলবার ওই চিঠিতে প্রতিটি রাজ্যের মুখ্যসচিবদের উদ্দেশে বলা হয়েছে, স্টকের সীমা নির্ধারণ, দামের ঊর্ধ্বসীমা, উৎপাদন বৃদ্ধি, ডিলারদের অ্যাকাউন্টে নজরদারি এবং এই জাতীয় অন্যান্য কাজে কড়া নজরদারি চালাতে।

সচিব জানিয়েছেন, পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য অত্যাবশ্যকীয় পণ্যের জোগান অব্যাহত রাখতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নিয়মিত ভাবে পরামর্শ দিচ্ছেন। তাঁর পরামর্শ মতোই রাজ্য সরকারগুলিকে সহযোগিতার আহ্বান জানানো হয়েছে।

আরও পড়ুন: ‘বদলা’র ইঙ্গিতের কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই সুর বদল ডোনাল্ড ট্রাম্পের!

একই সঙ্গে তিনি বলেন, কালোবাজারি এবং বেআইনি মজুতদারদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। বিপর্যয় ব্যবস্থাপনা আইন অনুযায়ী, খাদ্যদ্রব্য এবং ওষুধের মতো নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রীর উৎপাদনকারী/প্রস্তুতকারীদের কাজ চালিয়ে যেতে বলা হয়েছে। একই সঙ্গে কর্মী সংকোচনের ফলে এই পণ্যগুলির উৎপাদন ব্যাহত হওয়ার কারণে কালোবাজারির পাশাপাশি লাগামহীন দাম নিয়ন্ত্রণেও কড়া নজরদারি চালানো হচ্ছে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.