তামিল হোক জাতীয় ভাষা, দাবিতে সরব বিজেপি নেতা

Amit Shah
প্রতীকী ছবি

ওয়েবডেস্ক: হিন্দি দিবসে হিন্দি ভাষার পক্ষে জোরালো সওয়াল করেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। তিনি দেশকে ঐক্যবদ্ধ করতে হিন্দিকে জাতীয় ভাষা হিসাবে তুলে ধরার চেষ্টা করেন। অমিতের মন্তব্যের পরই সৃষ্টি হয় দেশজোড়া বিতর্ক। সেই বিতর্কেই নতুন ইন্ধন জোগালেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা বিজেপি নেতা পন রাধাকৃষ্ণান।

অমিত টুইটার পোস্টে লিখেছিলেন, “হিন্দি ভাষাই একমাত্র সমগ্র জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করতে সক্ষম। ভারতে বহুবিধ ভাষা রয়েছে, কিন্তু সেগুলির নিজস্ব একটা তাৎপর্য রয়েছে। কিন্তু হিন্দি এখন গোটা দেশের বহুল ব্যবহৃত ভাষা। স্বাভাবিক ভাবেই গোটা দেশকে এক সূত্রে গাঁথতে পারে হিন্দি”।

অমিতের বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে রাধাকৃষ্ণান দাবি করেন, “একজন তামিলিয়ান হিসাবে আমি চাই আমাদের ভাষাও উন্নত হোক। আমরা যদি আমাদের ভাষার মানোন্নয়ন করতে পারি এবং দেশের সমস্ত রাজ্যেই এটাকে ছড়িয়ে দিতে পারি, তা হলে তামিলও জাতীয় ভাষা হিসাবে স্বীকৃতি পেতে পারে”।

সংবাদ সংস্থা এএনআই-কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে রাধাকৃষ্ণান বলেন, “ওই একই সময়ে আমরাও তখন এক দেশ, এক ভাষা মেনে নেব”।

টুইটার পোস্টে অমিত দেশের ঐক্য বজায় রাখতে একটি মাত্র ভাষার উপরই বেশি করে জোর দেওয়ার আবেদন রাখেন। বলেন, “ভারতকে বিশ্বব্যাপী একটি ভাষার পরিচয়ে চিহ্নিত করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ”।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্যের পরই ডিএমকে প্রধান স্টালিন, কর্নাটকের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী সিদ্দারামাইয়া, পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং বামপন্থী দলগুলিও প্রবল বিরোধিতার পথ ধরেন

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.