Connect with us

খবর

মার্চ থেকে কোক-পেপসি বেচবেন না তামিলনাডুর ব্যবসায়ীরা: রিপোর্ট

চেন্নাই: কোনো বহুজাতিক সংস্থার তৈরি নরম পানীয় ১ মার্চ থেকে বিক্রি করবেন না তামিল ব্যবসায়ীরা। দোকানে থাকবে কেবল ভারতীয় ব্র্যান্ড। বুধবার এই খবর প্রকাশিত হয়েছে ‘দ্য হিন্দু’ পত্রিকায়। জল্লিকাট্টু নিয়ে তামিলনাডু ব্যাপী বিশাল প্রতিবাদের ধারাবাহিকতাতেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তামিল ব্যবসায়ীরা।

জল্লিকাট্টুর বিরুদ্ধে যেসব ব্যক্তি বা সংগঠন অংশ নিয়েছেন, তাঁদের অনেকের কাছেই এই প্রতিবাদ আসলে স্থানীয় সংস্কৃতিকে রক্ষার লড়াই। পশুর অধিকার নিয়ে সরব আন্তর্জাতিক সংগঠন পেটা-র বিরুদ্ধে তাঁদের ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন তাঁরা। পেটা-র সদর দফতর মার্কিন মুলুকে। কোক এবং পেপসি-ও দুই মার্কিন বহুজাতিক সংস্থা। সেই জায়গা থেকেই পেটার পাশাপাশি দুই নরম পানীয় প্রস্তুতকারক সংস্থার বিরুদ্ধে অবস্থান নেওয়ার পক্ষপাতি ওই প্রতিবাদীরা।

“ওই নরম পানীয়গুলি যত না শরীরের উপকার করে, তার চেয়ে বেশি ক্ষতি করে। মাত্র কিছুদিন আগে, ওদের মধ্যে একটি সংস্থা স্বীকার করেছে, তাদের পানীয়টি শিশুদের উপযোগী নয় এবং তাতে কিছু ক্ষতিকারক রাসায়নিক আছে”, বললেন তামিলনাডুর একটি ব্যবসায়ীদের সংগঠনের সভাপতি এ এম বিক্রমারাজা।

তামিলনাডু ভানিগার সংগনগালিন পেরামাইপ্পু নামে ওই সংগঠনের সভাপতির আরও দাবি, “পেপসি এবং কোকা কোলা থিরুনেলভেলির থামিরাবরণী নদী থেকে জল নেয়, ফলে সেখানকার চাষিরা সেচের জল পান না”।

প্রায় ১৬ লক্ষ সদস্যের এই সংগঠনটি গোটা ফেব্রুয়ারি মাস জুড়ে বিদেশি ব্র্যান্ডের ক্ষতিকারক দিকগুলি নিয়ে ব্যবসায়ীদের সচেতন করে তোলার প্রয়াস চালাবে।হোটেল এবং রেস্তোরাঁগুলির কাছেও বিদেশি পণ্য বিক্রি না করার আবেদন জানাবে তারা।

বিক্রমারাজা বলেন, তাঁরা ১৯৯৮ সাল থেকে কিনলে এবং পেপসির বিরুদ্ধে লড়াই চালাচ্ছেন। কিন্তু সম্প্রতি জল্লিকাট্টু নিয়ে লড়াইয়ের মধ্য দিয়ে রাজ্যের তরুণ প্রজন্ম নতুন করে নরম পানীয়র বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা জারি করার দাবি তুলেছে। তাতে ‘উৎসাহিত হয়েই তাঁরা এই পদক্ষেপ করছেন’।

রাজ্য

রেকর্ড সংখ্যক পরীক্ষার দিন আক্রান্তের সংখ্যাতেও নতুন রেকর্ড, রাজ্যে বাড়ল সুস্থতার হারও

খবরঅনলাইন ডেস্ক: এই প্রথম রাজ্যে দৈনিক নমুনা পরীক্ষা ১১ হাজারের গণ্ডি ছাড়িয়ে গেল। স্বাভাবিক ভাবেই রেকর্ড সংখ্যক নমুনা পরীক্ষার দিন, আক্রান্তের সংখ্যাতেও নতুন রেকর্ড তৈরি হল। একই সঙ্গে পাঁচশোর বেশি মানুষ সুস্থ হয়ে ওঠায় সুস্থতার হারে আরও কিছুটা উন্নতি এসেছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে নতুন করে ৬৬৯ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এর ফলে রাজ্যে মোট আক্রান্তের সংখ্যা কুড়ি হাজারের গণ্ডি পেরিয়ে এখন এসে দাঁড়িয়েছে ২০,৪৮৮তে। উল্লেখযোগ্য বিষয় হল, রাজ্যে বর্তমানে রোগীর সংখ্যা দ্বিগুণ হওয়ার সময়সীমা এখন বেড়ে হয়েছে ২১ দিন।

গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনামুক্তি ঘটেছে ৫৩৪ জনের। ফলে এখনও পর্যন্ত সম্পূর্ণরূপে করোনাকে জয় করে ফেলেছেন ১৩,৫৭১ জন। ১৮ জনের মৃত্যু হওয়ায় রাজ্যে মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৭১৭। রাজ্যে সুস্থতার হার বেড়ে হয়েছে ৬৬.২৩ শতাংশ। সক্রিয় রোগী রয়েছেন ৬,২০০।

কলকাতা ও পার্শ্ববর্তী চার জেলা

গত কয়েক দিনের তুলনায় কলকাতায় নতুন আক্রান্তের সংখ্যা বেশ কিছুটা কম। এ দিন শহরের ১৮২ জন বাসিন্দা নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এর ফলে শহরে এখন মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৬,৬২২। যদিও কলকাতায় সুস্থতার হার বেশ ভালোই। কারণ এখনও পর্যন্ত ৪,১৪২ মানুষ সুস্থ হয়ে উঠেছেন। কলকাতায় করোনায় মৃতের সংখ্যা ৪০২। ফলে শহরে এখন সক্রিয় রোগী রয়েছেন ২,০৭৮।

কলকাতার পরেই আক্রান্তের সংখ্যায় দ্বিতীয় আর তৃতীয় স্থানে রয়েছে যথাক্রমে উত্তর ২৪ পরগনা (১৩৪) আর হাওড়া (১০২)। অন্য দিকে দক্ষিণ ২৪ পরগণা আর হুগলিতে আক্রান্ত হয়েছেন যথাক্রমে ৬২ জন করে। এই চার জেলার মধ্যে শুধুমাত্র দক্ষিণ ২৪ পরগণাতেই সক্রিয় রোগীর সংখ্যা আগের দিনের থেকে কমেছে।

দক্ষিণবঙ্গের বাকি জেলা

পূর্ব মেদিনীপুর বাদে দক্ষিণবঙ্গের বাকি জেলায় নতুন আক্রান্তের সংখ্যা দশের কমেই রয়েছে। এর মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্তের খোঁজ মেলেনি ঝাড়গ্রাম, আর বীরভূমে। ঝাড়গ্রাম তো এমনিতেই করোনামুক্ত। অন্য দিকে বীরভূমে মোট আক্রান্তের সংখ্যা তিনশো ছাড়ালেও সুস্থ হয়ে গিয়েছেন ২৮৫ জন।

বর্তমানে পুরুলিয়া আর বাঁকুড়ায় সক্রিয় রোগী রয়েছেন যথাক্রমে ৮ আর ৪৯। পূর্ব আর পশ্চিম বর্ধমানে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ৩১ আর ৩২। পূর্ব আর পশ্চিম মেদিনীপুরে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ৯৯ আর ৫২। অন্য দিকে নদিয়া আর মুর্শিদাবাদে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা যথাক্রমে ৭৩ আর ৫২।

উত্তরবঙ্গ

উত্তরবঙ্গে মালদা আর দার্জিলিং নিয়ে চিন্তা রয়েছে রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের। গত ২৪ ঘণ্টায় দার্জিলিংয়ে ২৬ আর মালদায় ৩৪ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। দার্জিলিংয়ের সব আক্রান্তই শিলিগুড়ির। এর মধ্যে মালদায় বর্তমানে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ২৯৩ আর দার্জিলিংয়ে ১২৫।

আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার, কালিম্পং আর দক্ষিণ দিনাজপুর থেকে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে কোনো করোনা আক্রান্তের সন্ধান মেলেনি। এর মধ্যে করোনামুক্ত হওয়ার পথে অনেকটাই এগিয়ে গিয়েছে কোচবিহার। কারণ, ওই জেলায় এখন সক্রিয় রোগী রয়েছেন মাত্র এক জন। আলিপুরদুয়ারে সক্রিয় রোগী ৯ জন।

কালিম্পং এখন সক্রিয় রোগী রয়েছেন ৪ জন। উত্তর আর দক্ষিণ দিনাজপুরে যথাক্রমে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ৫৮ আর ৩৫ জন।

নমুনা পরীক্ষার তথ্য

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে ১১,০৫৩টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে, যা এখনও পর্যন্ত দৈনিক সর্বোচ্চ। এর ফলে এখনও পর্যন্ত রাজ্যে মোট ৫ লক্ষ ১৮ হাজার ৫৪টি নমুনা পরীক্ষা হয়ে গেল। রাজ্যে নমুনা পজিটিভ হওয়ার হার বর্তমানে রয়েছে ৩.৯৪ শতাংশ।

Continue Reading

দেশ

নতুন নিয়মে খুলছে তাজমহল!

সৌধগুলিতে প্রবেশের জন্য প্রত্যেক দর্শনার্থীকে অবশ্যই মাস্ক পরতে হবে। প্রবেশ পথে থাকবে থার্মাল স্ক্রিনিংয়ের ব্যবস্থা।

ওয়েবডেস্ক: প্রায় সাড়ে তিন মাস বন্ধ থাকার পর ফের খুলছে তাজমহল। সূত্রের খবর, কোভিড-১৯ মহামারির (Covid-19 pandemic) মধ্যেই আগামী ৬ জুলাই থেকে ফের দর্শনার্থীদের প্রবেশাধিকার দেওয়া হতে পারে।

আগরার (Agra) পর্যটন শিল্পের বৃহত্তম অংশ নির্ভরশীল তাজমহলের (Taj Mahal) উপরেই। ফলে তা খুলে দেওয়া হলে এই শিল্পে নতুন করে প্রাণসঞ্চার হতে পারে।

আর্কিওলজিক্যাল সার্ভে অব ইন্ডিয়ার (ASI) একটি সূত্র জানাচ্ছে, করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধের যাবতীয় পদক্ষেপ বজায় রেখেই আনলক-২ পর্বেই তাজমহল খুলে দেওয়ার আশা করা হচ্ছে। তবে এ ব্যাপারে শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখতে বিশেষ পদ্ধতি অবলম্বন করা হবে।

কী ভাবে খোলা হবে?

দু’টি শিফটে খোলা হতে পারে তাজমহল। প্রত্যেক শিফটে সর্বাধিক পাঁচ হাজার এবং আড়াই হাজার করে দর্শনার্থীকে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হতে পারে।

একই ভাবে আগরা দুর্গেও সকালের শিফটে ১২০০ এবং দুপুরের শিফটে ১৩০০ দর্শনার্থীকে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হতে পারে।

সৌধগুলিতে প্রবেশের জন্য প্রত্যেক দর্শনার্থীকে অবশ্য়ই মাস্ক পরতে হবে। প্রবেশ পথে থাকবে থার্মাল স্ক্রিনিংয়ের ব্যবস্থা। ভিতরের ঢোকার পরেও শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে। আপাতত হাতে-হাতে টিকিটের পরিবর্তে ই-টিকিটিং ব্যবস্থাকেই বেছে নেওয়া হতে পারে বলে সূত্রটি জানিয়েছে।

বন্ধ হওয়ার আগে

গত ১৭ মার্চ থেকে দর্শনার্থীদের জন্য পুরোপুরি বন্ধ হয়ে যায় তাজমহল।

করোনাভাইরাস সংক্রমণের জেরে দর্শনার্থীর সংখ্যা হু হু করে কমতে শুরু করে। লকডাউনে ধর্মীয়, পর্যটনস্থানগুলি বন্ধ হয়ে যায়। পাশাপাশি দর্শনার্থীর সংখ্য়া হ্রাসও একটা বড়ো কারণ।

বিদেশি পর্যটকদের ভিসার উপর কড়াকড়ি শুরু হওয়ার পর তাঁরা আর আগের মতো ভিড় জমাতেন না।

বন্ধ হওয়ার সপ্তাহে সার্বিক দর্শনার্থীর সংখ্যায় উল্লেখ্য়নীয় পতন ঘটে। রবিবার ছুটির দিনে যেখানে ২৫ হাজারের বেশি দর্শনার্থীর সমাগম হতো, সেখানে ওই সপ্তাহে দর্শনার্থীর সংখ্যা ঠেকে ১৩ হাজারে। অথচ শনিবার তা ছিল ১৫ হাজারের বেশি, বৃহস্পতিবার ১৬ হাজারের বেশি। অন্য দিকে রবিবার বিদেশি দর্শনার্থীদের সংখ্যা স্বাভাবিক সময়ে তিন হাজারের কম-বেশি থাকলেও ওই সপ্তাহে তা হয় মাত্র ১২০০।

এক দিকে মারণ ভাইরাস নিয়ে দর্শনার্থীদের মনে সংশয় এবং অন্য দিকে বেশ কিছু কড়াকড়ি দর্শনার্থী সংখ্য়ায় ভাটার সৃষ্টি করে।

পর্যটনে খুশির খবর

টানা কয়েক মাস বন্ধ থাকার পর ফের তাজমহল খোলার খবর শুনে আগরা টুরিস্ট ওয়েলফেয়ার চেম্বারের প্রেসিডেন্ট প্রহ্লাদ আগরওয়াল উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, “আগরা পর্যটন শিল্পের সঙ্গে জড়িত প্রায় চার লক্ষ মানুষ স্বস্তি পাবেন। আশা করা হচ্ছে, আন্তর্জাতিক বিমান পরিষেবা চালু হওয়ার পর পরিস্থিতি ধীরে হলেও আবার আগের অবস্থায় ফিরে আসবে”।

অন্য দিকে টুরিজম গিল্ড অব আগরার চেয়ারম্যান হরি সুকুমার বলেন, “এই সিদ্ধান্ত সারা বিশ্বকে ইতিবাচক বার্তা দেবে-আগরা পর্যটকদের জন্য নিরাপদ”।

Continue Reading

দেশ

আতঙ্ক বাড়িয়ে ফের কাঁপল দিল্লি

নয়াদিল্লি: ফের ভূমিকম্প হল রাজধানী দিল্লিতে। শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টা নাগাদ এই কম্পনের জেরে মানুষের মধ্যে তীব্র আতঙ্ক ছড়ায়। যদিও এই কম্পনের ফলে কোনো হতাহতের খবর নেই।

শুক্রবার এই কম্পনের মাত্রা ছিল ৪.৫। কেন্দ্রস্থল ছিল হরিয়ানার গুরুগ্রাম থেকে ৬৩ কিমি দূরে।

এপ্রিল থেকেই কম্পনের হিড়িক লেগেছে দিল্লি এবং তার আশেপাশের এলাকায়। সব কম্পনই ২ থেকে সাড়ে চার মাত্রার মধ্যে হয়েছে। এই কম্পনের কারণে মানুষের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়েছে যে আগামী দিনে আরও বড়ো কোনো কম্পন হবে কি না।

তবে বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, এই ছোটো কম্পনগুলো আসন্ন বড়ো কোনো কম্পনের ইঙ্গিত আদৌ দেয় না।

অন্যত্রও কম্পন

শুক্রবার ভারতের বিভিন্ন প্রান্তে ভূমিকম্প হয়েছে। এ দিন সকালে মিজোরামের চাম্ফাইয়ে ৪.৫ মাত্রার একটি কম্পন হয়। এর পর ৪.৪ মাত্রার একটি কম্পন হয় কার্গিলে। পাশাপাশি মহারাষ্ট্রেও এ দিন ৫.২ মাত্রার একটি কম্পন হয়। উৎসস্থল ছিল পুনে থেকে ২২৫ কিমি দূরে বারশিতে।

Continue Reading
Advertisement
বিনোদন4 hours ago

‘সড়ক ২’ পোস্টার: ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাতের অভিযোগে মহেশ ভাট, আলিয়া ভাটের বিরুদ্ধে মামলা

রাজ্য5 hours ago

রেকর্ড সংখ্যক পরীক্ষার দিন আক্রান্তের সংখ্যাতেও নতুন রেকর্ড, রাজ্যে বাড়ল সুস্থতার হারও

দেশ5 hours ago

নতুন নিয়মে খুলছে তাজমহল!

wfh
ঘরদোর6 hours ago

ওয়ার্ক ফ্রম হোম করছেন? কাজের গুণমান বাড়াতে এই পরামর্শ মেনে চলুন

দেশ6 hours ago

আতঙ্ক বাড়িয়ে ফের কাঁপল দিল্লি

শিল্প-বাণিজ্য6 hours ago

কোভিড-১৯ মহামারি ভারতীয়দের সঞ্চয়ের অভ্যেস বদলে দিয়েছে: সমীক্ষা

fat
শরীরস্বাস্থ্য6 hours ago

কোমরের পেছনের মেদ কমান এই ব্যায়ামগুলির সাহায্যে

বিদেশ7 hours ago

নরেন্দ্র মোদীর ‘বিস্তারবাদী’ মন্তব্যের পর চিনের কড়া প্রতিক্রিয়া

নজরে