খবরঅনলাইন ডেস্ক: অসমের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তরুণ গগৈ (Tarun Gogoi) মারা গেলেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৮৬ বছর। রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী তথা বিজেপি নেতা হিমন্ত বিশ্বশর্মা সোমবার বিকেল সাড়ে পাঁচটা নাগাদ তাঁর মৃত্যুসংবাদ জানান।

উল্লেখ্য গত ২৫ আগস্ট কোভিডে (Covid 19) আক্রান্ত হয়েছিলেন গগৈ। প্রায় দু’মাস গুয়াহাটি মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে ভরতি থাকার পর গত ২৫ অক্টোবর ছাড়া পান। কিন্তু এক সপ্তাহের বেশি বাড়িতে থাকতে পারেননি তিনি। গত ২ নভেম্বর ফের হাসপাতালে ভরতি করাতে হয় তাঁকে।

এর পর তাঁর শারীরিক অবস্থার ধীরে ধীরে অবনতি হতে থাকে। তাঁর বেশ কিছু অঙ্গপ্রত্যঙ্গ কাজ না করায় ভেন্টিলেশন সাপোর্টে রাখা হয়। সোমবার সকালে হাসপাতালে যান শর্মা। তিনি সাংবাদিকদের বলেন,  “প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়েছে। তাঁকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছে। তাঁর জন্য ঈশ্বরের কাছে প্রার্থনা করছি।”

অন্য দিকে গগৈয়ের মৃত্যু সংবাদ শুনে ডিব্রুগড়ে নিজের নির্ধারিত কর্মসূচি বাতিল করে ফিরে আসছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সনোওয়াল। টুইটারে তিনি জানান, গগৈ তাঁর পিতৃসম। এই কঠিন সময়ে তাঁর পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর জন্য গুয়াহাটি ফিরে আসছেন।

গগৈয়ের শারীরিক অবস্থার অবনতি হচ্ছে দেখে তাঁকে সুস্থ করে তোলার সব রকম চেষ্টা করেছিল হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। এমনকি সাউন্ড সিস্টেমের ব্যবস্থা করে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীর ভাষণ এবং ভূপেন হাজারিকার গানও শোনানো হচ্ছিল তাঁকে।

কিন্তু কোনো কিছুই কাজে দিল না। গগৈয়ের মৃত্যুতে অসমের পাশাপাশি, গোটা দেশের রাজনীতিতেই একটা যুগের অবসান হল।

খবরঅনলাইনে আরও পড়তে পারেন

ডিসেম্বর থেকে ‘দুয়ারে দুয়ারে সরকার’, নয়া প্রকল্পের ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন