ananta

ওয়েবডেস্ক: বিজেপি নেতা তথা কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অনন্ত হেগড়ে বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলিকে “গাধা এবং বানরের” সঙ্গে তুলনা করলেন। আগামী লোকসভা নির্বাচনে দেশের মানুষ কাকে ভোট দেবে, তা নির্ধারণ করে নেওয়ার ব্যাখ্যা দিতে গিয়েই তিনি এই তুলনা টেনে আনেন।

গেহড়ে বলেন, “আগামী লোকসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে গাধা, কাক, ভালুক, শেয়াল বা বানরের মতো বিরোধীরা জোট বেঁধেছে। আর অন্য দিকে আছেন বাঘের মতো নরেন্দ্র মোদী। ফলে ২০১৯-এ সাধারণ মানুষকে বলে দিতে হবে না যে, তাঁরা বাঘকেই ভোট দেবেন”।

গত কয়েক দিন ধরেই দেশের সার্বিক উন্নয়নের প্রসঙ্গ তুলে বিজেপি সরকারকে তুলোধনা করছে জাতীয় কংগ্রেস। হেগড়ে কংগ্রেসের উদ্দেশে বলেন, “ওই দলটির পাপের ফল ভোগ করতে হচ্ছে দেশের মানুষকে। মানুষ এখন প্লাস্টিকের চেয়ারে বসে আছেন, ওই দলটি এত দিন দেশ চালানোর জন্য। কিন্তু বিজেপি যদি আরও বেশি দিন দেশ চালাত তা হলে প্লাস্টিকের নয়, দেশের নাগরিকরা রূপোর চেয়ার বসতেন”।

এর আগেও বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য খ্যাত হয়েছিলেন হেগড়ে। কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা থেকে তাঁর অপসারণের দাবি তুলেছিল কংগ্রেস এবং জে়ডি (এস) জোট। কর্নাটকের বিধানসভা নির্বাচনের প্রচারে হেগড়ে দাবি করেছিলেন, “আরএসএস ৬০-৭০ বছর ধরে লাগাতার দেশের মানুষকে হিন্দুত্বের নীতি-আদর্শের ব্যাপারে সচেতন করার চেষ্টা করছে। কিন্তু কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী সিদ্দারামাইয়া বা কংগ্রেসের সভাপতি রাহুল গান্ধী নিজের অভ্যেসবশে তা শিখছেন না। আসলে তাঁরা ‘ফেক হিন্দু”।

এ ছাড়া ভারতীয় সংবিধানে ‘ধর্মনিরপেক্ষ’ শব্দটি বাদ দেওয়ার জোরাল দাবি তুলে তিনি বিতর্কের কেন্দ্রবিন্দুতে চলে এসেছিলেন।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here