Connect with us

দেশ

গোটা দেশকে তিনটে জোনে ভাগ করে লকডাউন তোলার পরিকল্পনা

Published

on

খবর অনলাইনডেস্ক: ১৪ এপ্রিল যত এগিয়ে আসছে ততই কেন্দ্রের কাছে একটা বিষয় মাথাব্যাথার কারণ হয়ে উঠছে। লকডাউন (Lockdown) প্রত্যাহার করা হবে কি না। দেশের কিছু অংশের পরিস্থিতি এতটাই খারাপ, যেখানে লকডাউন উঠবে না বলে এখনই ধরে নেওয়া যায়। কিন্তু গোটা দেশে বেশি দিন লকডাউন চালিয়ে যাওয়াও মুশকিল। আর্থিক সংকট দেখা দিতে পারে।

বিশেষজ্ঞদের অনেকেই বলছেন, সর্বত্র লকডাউন না-তুলে সংক্রমণ ও হটস্পটের (Hotspot) নিরিখে গোটা দেশকে তিন বা তার বেশি জোনে ভাগ করা হোক। একটি নির্দিষ্ট সময় অন্তর প্রতিটি জোনের অবস্থা খতিয়ে দেখে লকডাউন তোলার সিদ্ধান্ত নেওয়া হোক আলাদা আলাদা করে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, যে রাজ্য বা কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে করোনা-রোগীর সংখ্যা হাতে গোনা, সে জোনটাকে প্রথমে চিহ্নিত করা উচিত। এই তালিকায় থাকবে অরুণাচলপ্রদেশ, মণিপুর, মিজোরাম, ত্রিপুরা, পুদুচেরি, ঝাড়খণ্ড, গোয়া, হিমাচল প্রদেশ, লাদাখ, ছত্তীসগড়, আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জ।

এই অঞ্চলে ১৫ তারিখই লকডাউন তুলে দিয়ে স্বাভাবিক কাজকর্ম ফেরানো যেতে পারে। এর মধ্যে মেঘালয়, সিকিম আর নাগাল্যান্ডের মতো রাজ্যও পড়ছে যেখানে এখনও পর্যন্ত কোনো করোনা-রোগীর সন্ধান মেলেনি।

আরও পড়ুন একদিনে আমেরিকায় মৃত প্রায় দু’হাজার, তবুও হুমকি দিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প

দ্বিতীয় জোনে যে রাজ্যগুলি রাখার কথা বলা হচ্ছে, সেগুলি হল, পশ্চিমবঙ্গ (West Bengal), ওড়িশা (Odisha), বিহার, পঞ্জাব, হরিয়ানা, অসম, চণ্ডীগড় এবং জম্মু ও কাশ্মীর। এই জোনে সংক্রমিতের সংখ্যা কোথাও ২৫০ ছাড়ায়নি। মৃতের সংখ্যাও দুই অঙ্কে পৌঁছয়নি। ওই জোনে লকডাউন আংশিক ভাবে শিথিল করার কথা ভাবা হচ্ছে।

আর তৃতীয় জোনে রাখার কথা ভাবা হচ্ছে মহারাষ্ট্র (Maharashtra), মধ্যপ্রদেশ, অন্ধ্রপ্রদেশ, গুজরাত, কেরল, রাজস্থান, উত্তরপ্রদেশ, দিল্লি, তামিলনাড়ু, তেলঙ্গানা ও কর্নাটকের মতো রাজ্যগুলি। প্রত্যেকটি রাজ্যেই সংক্রমিতের সংখ্যা আড়াইশোর বেশি। এমনকি মহারাষ্ট্রে তো ১০০০ ছাড়িয়েছে আক্রান্তের সংখ্যা। এই সব রাজ্যে লকডাউন আরও কঠোর ভাবে প্রয়োগ করার কথা ভাবা হচ্ছে।

তবে লকডাউন তুললেও স্কুল-কলেজ-সহ যাবতীয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ধর্মীয় স্থান, শপিং মল, সাংস্কৃতিক বা সামাজিক জমায়েত এখনও অন্তত চার সপ্তাহের জন্য বন্ধ রাখার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে।

দেশ

৬ বিধায়ক, ৩ সাংসদ এবং প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি-সহ আর যে সব ‘ভিভিআইপি’ করোনার শিকার

মৃতদের মধ্যে রয়েছেন সাংসদ, বিধায়ক থেকে শুরু করে প্রাক্তন রাষ্ট্রপতির মতো ভিভিআইপি!

Published

on

খবর অনলাইন ডেস্ক: ভারতে রবিবার পর্যন্ত করোনাভাইরাসের শিকার হয়ে মৃত্যু হয়েছে ৮৬ হাজার ৭৫২ জনের। মৃতদের মধ্যে রয়েছেন সাংসদ, বিধায়ক থেকে শুরু করে প্রাক্তন রাষ্ট্রপতির মতো ভিভিআইপি-রাও।

প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি

Pranab Mukherjee
[প্রয়াত প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়]

ভারতে কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়ে মৃতের তালিকায় উল্লেখযোগ্য নাম প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়। তিনি নয়াদিল্লিতে সেনাবাহিনীর আর অ্যান্ড আর হাসপাতালে মস্তিষ্কের অস্ত্রোপচারের জন্য ভরতি হয়েছিলেন। তবে মারণ ভাইরাসের সংক্রমণের জেরে তাঁর শারীরিক পরিস্থিতির ক্রমাবনতি ঘটতে থাকে। পরিণামে প্রয়াত হন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি।

তিন সাংসদ

রাজ্যসভায় নির্বাচিত হওয়ার কয়েক মাসের মধ্যেই করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছেন বিজেপি সাংসদ অশোক গস্তি। উত্তর কর্নাটকের রাইচূড়ের বাসিন্দা অশোক গত জুন মাসে রাজ্যসভার সাংসদ হওয়ার পর থেকে একটি বারের জন্য সংসদে যাওয়ার সুযোগ মেলেনি।

ashok gasti
[প্রয়াত বিজেপি সাংসদ অশোক গস্তি]

তিরুপতির সাংসদ বালি দুর্গাপ্রসাদ রাওয়ের মৃত্যু হয়েছে করোনায়। ৬৪ বছরের দুর্গাপ্রসাদের একাধিক কো-মর্বিডিট ছিল।

তামিলনাড়ুর কন্যাকুমারীর কংগ্রেস সাংসদ এইচ বসন্তকুমারের মৃত্যু হয়েছে করোনায়। তামিলনাড়ুর প্রথমবারের সংসদ সদস্য এইচ বসন্তকুমার অতীতে দু’বার নাঙ্গুনেরি বিধানসভা কেন্দ্র থেকে বিধায়ক হিসেবে নির্বাচিত হয়েছিলেন। তিনি প্রদেশ কংগ্রেস কমিটির কার্যকরী সভাপতি ছিলেন।

ছয় বিধায়ক

উত্তরপ্রদেশের কারিগরি শিক্ষামন্ত্রী কমল রানি বরুণ এবং আরও এক মন্ত্রী ও প্রাক্তন ক্রিকেটার চেতন চৌহানের মৃত্যু হয়েছে কোভিড-১৯ আক্রান্ত হওয়ার পর।

[প্রয়াত চেতন চৌহান]

মধ্যপ্রদেশে কংগ্রেস বিধায়ক গোবর্ধন ডাঙ্গি মারা যান করোনায়।

পশ্চিমবঙ্গেও মৃত্যু হয়েছে দুই বিধায়কের। এক জন এগরার তৃণমূল বিধায়ক সমরেশ দাস এবং অন্যজন ফলতার তমোনাশ ঘোষ। মৃত্যুকালে তাঁদের বয়স হয়েছিল যথাক্রমে ৭৬ এবং ৬০ বছর।

[প্রয়াত এগরার বিধায়ক সমরেশ দাস]

তামিলনাড়ুতে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ডিএমকে বিধায়ক জে আনবাঝাগানের। আগে থেকেই তাঁর হার্ট এবং কিডনির রোগ ছিল।

তালিকা এখানেই শেষ নয়!

করোনায় মৃত ভিভিআইপি-দের তালিকা এখানেই শেষ নয়। সারা দেশে আরও বেশ কিছু স্বনামে পরিচিত রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বের মৃত্যুর কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছিল করোনা।

করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর মৃত্যু হয়েছে রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী এবং প্রবীণ বামপন্থী নেতা শ্যামল চক্রবর্তীর। জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে উল্টোডাঙার একটি নার্সিংহোমে তাঁকে ভরতি করা হয়।

[রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী শ্যামল চক্রবর্তী]

মৃত্যু হয়েছে মহারাষ্ট্রের প্রাক্তন সাংসদ হরিবাবু জাওয়ালে, লেহর কংগ্রেস নেতা এবং প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী পি নামগিয়াল, পুনের বিধায়ক সুধারক পরিচারক প্রমুখের।

Continue Reading

দেশ

রাজ্যসভায় বিক্ষোভ, নাটকীয়তার মধ্যেই পাশ হল দু’টি কৃষি বিল!

কৃষিক্ষেত্রে সংস্কার সংক্রান্ত বিলগুলির উপর ধ্বনি ভোট নেওয়া হয়।

Published

on

রাজ্যসভা। ছবি: আরএসটিভি থেকে

নয়াদিল্লি: বিরোধীদের সম্মিলিত প্রতিবাদ, বিক্ষোভ এবং নাটকীয় ঘটনার মধ্যেই রবিবার রাজ্যসভায় পাশ হয়ে গেল দু’টি কৃষি বিল।

এ দিন সকালে কেন্দ্রীয় কৃষি এবং কৃষক কল্যাণমন্ত্রী নরেন্দ্র সিংহ তোমর রাজ্যসভায় বিল দু’টি পেশ করেন। একটি ‘কৃষিপণ্য লেনদেন ও বাণিজ্য উন্নয়ন’ এবং অন্যটি ‘কৃষিপণ্যের দাম নিশ্চিত করতে কৃষকদের সুরক্ষা ও ক্ষমতায়ন চুক্তি’ সংক্রান্ত বিল।

সকাল থেকেই বিরোধীদের প্রতিবাদে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছিল রাজ্যসভা। তবে বিরোধীদের বিক্ষোভের মধ্যেই ধ্বনি ভোটে জয় পেল বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ।

বিরোধী দল কংগ্রেস দাবি করে, “কৃষকদের মৃত্যুর পরোয়ানা”য় স্বাক্ষর করবে না। বিরোধী দলগুলি সম্মিলিত ভাবে বিলগুলিকে সিলেক্ট কমিটিতে পাঠানোর দাবি জানায়। যদিও সেই দাবি আমল পায়নি।

তৃণমূল সাংসদ ডেকের ও’ব্রায়েন বলেন, “১৩-১৪টি বিরোধী দল প্রতিবাদ জানায়। তাদের কণ্ঠরোধ করতে যাবতীয় পদক্ষেপ নিয়েছে বিজেপি। ওরা সংসদের সব নিয়মকে হত্যা করছে। জঘন্যতম হিসেবে এটা রাজ্যসভার ঐতিহাসিক একটা দিন। দেশের মানুষ যাতে সেই ঘটনা দেখতে না পারেন, তাই রাজ্যসভা টিভির সম্প্রচার বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। ওরা রাজ্যসভা টিভিকেও সেনসর করছে”।

বিরোধীরা ওয়েলে নেমে তুমুল বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। হট্টগোলের সৃষ্টি হয় রাজ্যসভায়। এর পরই বাধ্য হয়ে অধিবেশন ১০ মিনিটের জন্য মুলতুবি রাখা হয়। তার পর রাজ্যসভা ফের চালু হতেই কৃষিক্ষেত্রে সংস্কার সংক্রান্ত বিলগুলির উপর ধ্বনি ভোট নেওয়া হয়।

প্রসঙ্গত, কৃষক এবং বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলির প্রতিবাদের মধ্যেই লোকসভায় পাশ হয়ে গিয়েছে ‘অত্যাবশ্যকীয় পণ্য সংশোধনী’, ‘কৃষি পণ্য লেনদেন ও বাণিজ্য উন্নয়ন’ এবং ‘কৃষিপণ্যের দাম নিশ্চিত করতে কৃষকদের সুরক্ষা ও ক্ষমতায়ন চুক্তি’ সংক্রান্ত তিনটি বিল।

বিলগুলি নিয়ে দেশের একাধিক রাজ্যের কৃষকেরা আশঙ্কা প্রকাশ করে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন। তাঁদের অভিযোগ, এই বিলকে হাতিয়ার করেই ফসলের ন্যূনতম সহায়ক মূল্য ছেঁটে ফেলা হবে। তবে কেন্দ্রীয় কৃষিমন্ত্রী এবং প্রধানমন্ত্রীর তরফে সেই অভিযোগ নস্যাৎ করা হয়েছে।

বিলগুলি পাশ হওয়ার পর এ দিন প্রধানমন্ত্রী মোদী বলেন, “ভারতীয় কৃষিক্ষেত্রের ইতিহাসে এক চরম সন্ধিক্ষণ। এই বিল পাশের জন্য দেশের কৃষকদের অভিনন্দন। এই বিল কৃষিক্ষেত্রের ভোল আমূল বদলে দেবে। কোটি কোটি কৃষকের হাতে ক্ষমতা তুলে দেবে”।

Continue Reading

দেশ

কৃষি বিল নিয়ে উত্তপ্ত রাজ্যসভা, চরম বিশৃঙ্খলা

Published

on

নয়াদিল্লি: কৃষিক্ষেত্রের সংস্কার সংক্রান্ত বিল রবিবার উত্তপ্ত হয়ে উঠল রাজ্যসভা। এ দিন তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েন কেন্দ্রের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়ে ডেপুটি চেয়ারম্যান হরিবংশের সামনে গিয়ে রুল বুক দেখানোর চেষ্টা করেন বলে জানা যায়।

তবে এনডিটিভির প্রতিবেদনে দাবি করা হয়, সংসদের রুল বুক ছিঁড়ে ফেলার চেষ্টা করেন তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েন। এবং ডেপুটি চেয়ারম্যানের মাইক্রোফোন ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করেন তিনি। যদিও ডেরেকের তরফে বলা হয়েছে, “সরকার রাজ্যসভা টিভি সেন্সর করেছিল এবং বিরোধীদের প্রতিবাদের ফুটেজটি কেটে দেওয়া হয়েছিল”।

এ দিন সকালে রাজ্যসভায় দু’টি বিল পেশ হওয়ার পর থেকেই পরিস্থিতি উত্তপ্ত হতে থাকে। কংগ্রেস-সহ অন্যান্য বিরোধী দল বিল আটকাতে মরিয়া হয়ে ওঠে। এমন পরিস্থিতিতে কংগ্রেস, তৃণমূল, ডিএমকে, সিপিএম, বিজেডি, আপ ও অন্য়ান্য দলের সাংসদরা বিল দু’টিকে সিলেক্ট কমিটিতে পাঠানোর দাবি তোলেন বলে জানান ডেরেক ও’ব্রায়েন।

এর পরই শুরু হয় তুমুল হট্টগোল। বিরোধীরা ওয়েলে নেমে প্রতিবাদ জানাতে থাকেন।  ‘কালা কানুন ওয়াপস লো’ স্লোগান দিতে থাকেন তৃণমূল সাংসদরা। গন্ডগোলের জেরে অধিবেশন মুলতুবি করা হয়।

ডেরেক একটি ভিডিও বার্তায় জানান, “১৩-১৪টি বিরোধী দল প্রতিবাদ জানায়। তাদের কণ্ঠরোধ করতে যাবতীয় পদক্ষেপ নিয়েছে বিজেপি। ওরা সংসদের সব নিয়মকে হত্যা করছে। জঘন্যতম হিসেবে এটা রাজ্যসভার ঐতিহাসিক একটা দিন। দেশের মানুষ যাতে সেই ঘটনা দেখতে না পারেন, তাই রাজ্যসভা টিভির সম্প্রচার বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। ওরা রাজ্যসভা টিভিকেও সেনসর করছে। সাংবাদিকরাও এখানে নেই”।

কেন্দ্রীয় কৃষি এবং কৃষক কল্যাণমন্ত্রী নরেন্দ্র সিংহ তোমর রাজ্যসভায় এ দিন বিল পেশ করে জানান, ‘‘কৃষকদের ফসলের ন্যায্য দাম পাওয়ার পথে এই বিল কোনো প্রতিবন্ধকতা তৈরি করবে না।’’ তাঁর কথায়, “আমি কৃষকদের আশ্বস্ত করতে চাই যে এই বিলগুলি ন্যূনতম সহায়ক মূল্যের (এমএসপি) সঙ্গে সম্পর্কিত নয়”।

কিন্তু বিষয়টিকে এতটা সদর্থক হিসেবে নিতে চাইছে না বিরোধী দল কংগ্রেস। দলের সাংসদ প্রতাপ সিং বাজওয়া বলেন, তাঁর দল “কৃষকদের মৃত্যুর পরোয়ানা”য় স্বাক্ষর করবে না।

Continue Reading
Advertisement
দেশ34 mins ago

৬ বিধায়ক, ৩ সাংসদ এবং প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি-সহ আর যে সব ‘ভিভিআইপি’ করোনার শিকার

দেশ2 hours ago

রাজ্যসভায় বিক্ষোভ, নাটকীয়তার মধ্যেই পাশ হল দু’টি কৃষি বিল!

দেশ3 hours ago

কৃষি বিল নিয়ে উত্তপ্ত রাজ্যসভা, চরম বিশৃঙ্খলা

mamata banerjee
রাজ্য3 hours ago

সোমবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায়ের উত্তরবঙ্গ সফর স্থগিত

দেশ4 hours ago

‘কৃষকের মৃত্যু পরোয়ানা’য় স্বাক্ষর করব না, রাজ্যসভায় কৃষি বিল নিয়ে বলল কংগ্রেস

দেশ5 hours ago

ব্যথার কারণ খুঁজতে হল এক্স-রে, বন্দির মলদ্বারে হদিশ মিলল চারটি মোবাইলের

দেশ7 hours ago

টানা দ্বিতীয় দিনে নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যাকে ছাপিয়ে গেল সুস্থতা

দঃ ২৪ পরগনা7 hours ago

সুন্দরবন সেই তিমিরেই! ৫টি দ্বীপে খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দিল ‘গড়িয়া সহমর্মী’

দেশ8 hours ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ৯২৬০৫, সুস্থ ৯৪৬১২

শিল্প-বাণিজ্য2 days ago

এসবিআই এটিএমে টাকা তোলার নিয়ম বদলে গেল! দেখে নিন ওটিপি-ভিত্তিক পদ্ধতির খুঁটিনাটি বিষয়

বিজ্ঞান3 days ago

রাশিয়ার করোনা ভ্যাকসিনে সাত জনের মধ্যে এক জনের শরীরে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া!

Wriddhiman Saha
ক্রিকেট3 days ago

হায়দরাবাদের প্রথম একাদশে কি জায়গা পাবেন ঋদ্ধিমান সাহা?

kolkata knightriders
ক্রিকেট3 days ago

আইপিএলে কলকাতা নাইটরাইডার্সের সেরা প্রথম একাদশ কেমন হতে পারে?

কলকাতা2 days ago

কয়েকটি স্টেশনে ই-পাসের সংখ্যা বাড়াচ্ছে কলকাতা মেট্রো

Shreyas Iyer
ক্রিকেট2 days ago

আইপিএলের অন্যতম সেরা বোলিং লাইনআপ কি দিল্লি ক্যাপিটাল্‌সের?

MS Dhoni
ক্রিকেট2 days ago

চেন্নাই সুপারকিংসের আদর্শ লাইনআপে কত নম্বরে ব্যাট করতে পারেন মহেন্দ্র সিংহ ধোনি?

কেনাকাটা

কেনাকাটা1 day ago

সংসারের খুঁটিনাটি সমস্যা থেকে মুক্তি দিতে এই জিনিসগুলির তুলনা নেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিজের ও ঘরের প্রয়োজনে এমন অনেক কিছুই থাকে যেগুলি না থাকলে প্রতি দিনের জীবনে বেশ কিছু সমস্যার...

কেনাকাটা4 days ago

ঘরের জায়গা বাঁচাতে চান? এই জিনিসগুলি খুবই কাজে লাগবে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : ঘরের মধ্যে অল্প জায়গায় সব জিনিস অগোছালো হয়ে থাকে। এই নিয়ে বারে বারেই নিজেদের মধ্যে ঝগড়া লেগে...

কেনাকাটা1 week ago

রান্নাঘরের জনপ্রিয় কয়েকটি জরুরি সামগ্রী, আপনার কাছেও আছে তো?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রান্নাঘরের এমন কিছু সামগ্রী আছে যেগুলি থাকলে কাজ করাও যেমন সহজ হয়ে যায়, তেমন সময়ও অনেক কম খরচ...

কেনাকাটা2 weeks ago

ওজন কমাতে ও রোগ প্রতিরোধশক্তি বাড়াতে গ্রিন টি

খবরঅনলাইন ডেস্ক : ওজন কমাতে, ত্বকের জেল্লা বাড়াতে ও করোনা আবহে যেটি সব থেকে বেশি দরকার সেই রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা...

কেনাকাটা2 weeks ago

ইউটিউব চ্যানেল করবেন? এই ৮টি সামগ্রী খুবই কাজের

বহু মানুষকে স্বাবলম্বী করতে ইউটিউব খুব বড়ো একটি প্ল্যাটফর্ম।

কেনাকাটা3 weeks ago

ঘর সাজানোর ও ব্যবহারের জন্য সেরামিকের ১৯টি দারুণ আইটেম, দাম সাধ্যের মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ঘর সাজাতে কার না ভালো লাগে। কিন্তু তার জন্য বাড়ির বাইরে বেরিয়ে এ দোকান সে দোকান ঘুরে উপযুক্ত...

কেনাকাটা4 weeks ago

শোওয়ার ঘরকে আরও আরামদায়ক করবে এই ৮টি সামগ্রী

খবর অনলাইন ডেস্ক : সারা দিনের কাজের পরে ঘুমের জায়গাটা পরিপাটি হলে সকল ক্লান্তি দূর হয়ে যায়। সুন্দর মনোরম পরিবেশে...

kitchen kitchen
কেনাকাটা1 month ago

রান্নাঘরের এই ৮টি জিনিস কাজ অনেক সহজ করে দেবে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আজকাল রান্নাঘরের প্রত্যেকটি কাজ সহজ করার জন্য অনেক উন্নত ব্যবস্থা এসে গিয়েছে। তা হলে ঘণ্টার পর ঘণ্টা কষ্ট...

care care
কেনাকাটা1 month ago

চুল ও ত্বকের বিশেষ যত্নের জন্য ১০০০ টাকার মধ্যে এই জিনিসগুলি ঘরে রাখা খুবই ভালো

খবরঅনলাইন ডেস্ক : পার্লার গিয়ে ত্বকের যত্ন নেওয়ার সময় অনেকেরই নেই। সেই ক্ষেত্রে বাড়িতে ঘরোয়া পদ্ধতি অনেকেই অবলম্বন করেন। বাড়িতে...

কেনাকাটা1 month ago

ঘর ও রান্নাঘরের সরঞ্জাম কিনতে চান? অ্যামাজন প্রাইম ডিলে রয়েছে ৫০% পর্যন্ত ছাড়

খবরঅনলাইন ডেস্ক : অ্যামাজন প্রাইম ডিলে রয়েছে ঘর আর রান্না ঘরের একাধিক সামগ্রিতে প্রচুর ছাড়। এই সেলে পাওয়া যাচ্ছে ওয়াটার...

নজরে