election commission

ওয়েবডেস্ক: ই-মনোনয়ন নিয়ে কলকাতা হাইকোর্টের রায়কে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টে গিয়েছে রাজ্য নির্বাচন কমিশন। সূত্রের খবর, কমিশনের দায়ের করা সেই আবদনে ধরা পড়ল পাঁচটি ত্রুটি। স্বাভাবিক ভাবেই মামলার শুনানি নিয়েই প্রশ্ন উঠে গেল।

হাইকোর্ট গত মঙ্গলবার রায়ে বলেছিল, নির্ধারিত সময়ে ই-মেলের মাধ্যমে জমা করা মনোনয়ন খতিয়ে দেখে প্রার্থী হিসাবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার স্বীকৃতি দিতে হবে। সেই রায় নিয়ে বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলি উচ্ছ্বাস প্রকাশ করলেও বিপাকে পড়ে রাজ্য নির্বাচন কমিশন। একাধিক জটিলতার সম্মুখীন হয়ে তারা বুধবার সকালেই সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়। কিন্তু তড়িঘড়ি করতে গিয়ে লিখিত আবেদনে রয়ে যায় একাধিক ত্রুটি।

আরও পড়ুন: সুপ্রিম কোর্টে ই-মনোনয়ন মামলা দায়ের করল রাজ্য নির্বাচন কমিশন

সব থেকে আশ্চর্যজনক ত্রুটিটি ধরা পড়েছে আবেদনের ২৫২ নম্বর পাতায়। যেখানে কমিশন আদালতের নাম উল্লেখ করতেই ভুলে গিয়েছে। এ ছাড়া দু’টি পৃথক মামলার জন্য আলাদা মেমো নম্বর দেওয়া হয়নি। ওকালতনামাতেও রয়েছে ত্রুটি।

আরও পড়ুন: হাইকোর্টের রায়ে ছিঁড়ে গেল ‘মশারি’, বীরভূমে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারেন ১৮ সিপিএম প্রার্থী

জানা গিয়েছিল, বুধবার সাড়ে চারটের মধ্যে শুনানি সম্ভব না হলেও মামলার গুরুত্ব বিবেচনা করে হয়তো আগামী বৃহস্পতিবার তা হতে পারে। কিন্তু আইনজ্ঞদের বক্তব্য, যতক্ষণ পর্যন্ত না ওই ত্রুটিগুলি সংশোধন করা হচ্ছে, ততক্ষণ কোনো মতেই মামলার শুনানি নাও হতে পারে। অন্য দিকে কমিশন আবেদনে বলেছে, যত শীঘ্র সম্ভব মামলার নিষ্পত্তি করার কথা। কিন্তু সুপ্রিম কোর্টে ওই ত্রুটিপূর্ণ আবেদনকে মান্যতা দেওয়ার কোনো প্রশ্নই ওঠে না।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here