lal sarkar

ওয়েবডেস্ক: গত সপ্তাহেই ত্রিপুরা জুড়ে মুক্তি পেয়েছে সুশীল কুমার শরমনের বাণিজ্যিক হিন্দি ছবি ‘লাল সরকার’। গোটা ভারতের আর কোনো অঞ্চলে এই ছবি দেখানো না হলেও শুধু মাত্র ত্রিপুরাতে এই ছবি নিয়ে বাড়তি উদ্যোগ নিয়েছেন প্রযোজক। হিন্দি ছবিটিতে জুড়ে দেওয়া হয়েছে বাংলা এবং ককবরক ভাষার সাব-টাইটেল। কী রয়েছে ওই ছবিতে?

আগেই জানা গিয়েছিল, ছবি জুড়ে ঠাঁই পেয়েছে বিগত ২৫ বছরে ওই রাজ্যে বামফ্রন্ট সরকারের অপশাসনের ছবি। কী ভাবে খুন, ধর্ষণ, রাহাজানি, তোলাবাজি ছেয়ে গিয়েছে, সে সব ঘটনাই দৃশ্যায়িত হয়েছে ওই ছবিতে। কিন্তু ছবির পরিচালক-প্রযোজক এই ছবির সঙ্গে বিজেপির কোনো সম্পর্ক নেই গোছের মন্তব্য করলেও মুক্তি পাওয়ার পর বিষয়টি নিয়ে আর কারও মনে ধন্দ নেই।

আচমকা প্রযোজক ত্রিপুরা নিয়েই ছবি তৈরি করলেন কেন, তেমন প্রশ্ন তোলার ধ‌ৃষ্টতা দেখাতে পারবেন না কেউ। কিন্তু ঠিক ভোটের সময় তা মুক্তি পেয়ে শুধুমাত্র ত্রিপুরাতেই কেন চলছে, তাই নিয়ে প্রশ্ন তুলছে সিপিএম।

সিপিএমের ত্রিপুরা রাজ্য সম্পাদক বিজন ধর বলেন, ‘এটা কোনো চলচ্চিত্রই নয়। নিছক বামফ্রন্ট সরকারের বিরুদ্ধে অপপ্রচারের উদ্দেশ্য নিয়ে একটি বিকৃত প্রচারের ভিডিও তৈরি করা হয়েছে। আমরা নির্বাচন কমিশনের কাছে অবিলম্বে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য আবেদন জানিয়েছি। নির্বাচনী ফয়দা তোলার জন্য ওই ভিডিও ব্যবহার এখনই বন্ধ করতে হবে। কারণ এর সঙ্গে বাস্তবের কোনো মিল নেই।’

শুধু চলচ্চিত্র নয়, জানা গিয়েছে, সিপিএমের বিরুদ্ধে জনমত গড়ে তুলতে মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকারের নাম ব্যবহার করে একটি বই-ও প্রকাশ করেছে বিজেপি।

আরও পড়ুন: লাল সরকার: চলচ্চিত্রে চক্রান্ত দেখছে ত্রিপুরা সিপিএম, নেপথ্যে কি বিজেপি?

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন