farmers-h

ওযেবডেস্ক: দেশজোড়া কৃষক ধর্মধটের জেরে উত্তাল ভারতবর্ষ। শেষ কয়েক বছরে এত বড়ো কৃষক ধর্মঘটের উদাহরণ নেই বলেই উল্লেখ করা হচ্ছে। কারণ, আপাতত মহারাষ্ট্র, মধ্যপ্রদেশ, রাজস্থান, উত্তরপ্রদেশ, হরিয়ানা এবং পঞ্জাবের ১০০টির বেশি কৃষক সংগঠন ওই ধর্মঘটে শামিল হয়েছে। স্বাভাবিক ভাবেই সারা ভারত কিষাণ মহাসঙ্ঘের ডাকা এই ধর্মঘট ব্যাপক ভাবে প্রভাব ফেলতে চলেছে জাতীয় রাজনীতিতেও।

farmers1

কৃষিঋণের ১০০ শতাংশ মুকুব, কৃষিক্ষেত্রের উন্নতি সাধনে প্রয়োজনীয় সরকারি পদক্ষেপ গ্রহণ এবং এম এস স্বামীনাথন কমিটির প্রস্তাবের বাস্তবায়নের দাবিতে ডাকা এই ধর্মঘটের সময়সীমা নির্ধারণ করা হয়েছে টানা ১০ দিন। এখন থেকে বিভিন্ন পণ্যের চাহিদা দেখা দিতে শুরু করেছে। কারণ, ওই ১০ দিন পণ্য সরবরাহ বন্ধ থাকলে প্রভূত ভাবে সমস্যায় পডবে স্বাভাবিক জনজীবন।

farmers-2

ধর্মঘটের জেরে সব থেকে বেশি টান পড়বে দুধ, সবজি ও ফলের সরাবরাহে। ধর্মঘটের সমন্বয়কারী সন্দীপ গিদ্দে জানিয়েছেন, শুক্রবারে থেকে এই ধর্মঘট শুরু হয়েছে। আমরা দুধ, সবজি, ফল সরবরাহ বন্ধ করে দিয়েছি। আগামী কাল থেকে পণ্যবাহী যানগুলিকে আটকাতে হাইওয়েগুলিতে কৃষকরা অবস্থান-বিক্ষোভ দেখাবেন।

farmers3

ধর্মঘটের প্রথম দিনে বিক্ষোভের আঁচ তুঙ্গে উঠেছে মহারাষ্ট্র, পঞ্জাব ও রাজস্থানে। পাশাপাশি মধ্যপ্রদেশে দেখা গিয়েছে মিশ্র পরিস্থিতি। সংগঠনের নেতৃত্বের বক্তব্য, এটা ছিল শুরুর দিন। আগামী শনিবার থেকে আন্দোলন আরও তীব্র আকার ধারণ করবে। এই সময়ের মধ্যে সরকার যদি দাবিগুলি মেনে নেওয়ার কথা চিন্তাভাবনার মধ্যে নিয়ে না আসে, তা হলে বিপদে পড়বে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here