rajyasabha

নয়াদিল্লি: লোকসভায় ধ্বনি ভোটেই পাশ হয়ে গিয়েছে তিন তালাক বিরোধী মুসলিম উইমেন (প্রটেকশন অব রাইটস অন ম্যারেজ) বিল ২০১৭। এবার রাজ্যসভাতেও এই সপ্তাহেই পেশ হতে চলেছে ওই বিল। আজ সকাল থেকে রাজ্যসভায় এই বিল নিয়ে শাসক-বিরোধী উভয় দলের ব্যস্ততা তুঙ্গে। চলতি শীতকালীন অধিবেশন আজকের দিনটি বাদ দিলে হাতে থাকছে আর মাত্র তিনটে দিন। স্বাভাবিক ভাবেই এই সময়ের মধ্যে বিলটিকে পাশ করিয়ে নিতে মরিয়া বেজেপি। কিন্তু লোকসভায় একক সংখ্যা গরিষ্ঠতা থাকায় সেখানে পেশ এবং পাশ, মসৃণ ভাবে করতে সক্ষম হয়েছে বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ। ওই দিন কংগ্রেসের তরফে প্রস্তাবিত বিলের কয়েকটি জায়গায় সংশোধনের পরামর্শ দেওয়ার চেষ্টা করা হয়। পাশাপাশি সিপিএমের গুটিকয় সাংসদও কংগ্রেসের সঙ্গে এক সুরে কথা বলতে চান। কিন্তু বিজেপি সে সব কথায় কর্ণপাত না করেই রীতি মতো এক তরফা ভাবে ওই বিল পাশ করে নেয়।

আজ সকালে শোনা গিয়েছিল, মঙ্গলবার দুপুর একটার সময় রাজ্যসভা পেশ হতে চলেছে ওই বিল। কিন্তু রাজ্য সভায় সমস্ত বিরোধী দলগুলি এক মত হয়ে বিরোধিতা করলে বিজেপির পক্ষে বিল পাশ করা অসম্ভব হয়ে যাবে। ফলে আপাতত স্থির হয়েছে বুধবার ওই বিল পেশ করা হবে। তার আগে যতটা সম্ভব কসরত সেরে নিচ্ছে শাসক-বিরোধী উভয়েই।

জানা গিয়েছে, কংগ্রেস ইতিমধ্যেই সিপিএমের সঙ্গে কথা সেরে ফেলেছে। বাকি তৃণমূল বা ডিএমকের মতো দলগুলির সাংসদদের সঙ্গেও সমন্বয়ের কাজ চলছে। কিছুক্ষণ আগেই কংগ্রেস-সহ বিরোধী দলের বেশ কয়েকজন নেতা-নেত্রীর সঙ্গে বৈঠক করলেন। এর আগেই কংগ্রেস হুইপ জারি করে দলের সমস্ত রাজ্যসভার সংসদকে হাজির থাকার নির্দেশ দিয়েছে। বিরোধীদের দাবি, ওই প্রস্তাবিলের বেশ কয়েকটি জায়গায় সংশোধনীর প্রয়োজন রয়েছে। তার জন্য এখনই সেটিকে পাশ না করে আগে সাংবিধানিক কমিটির কাছে পাঠাতে হবে।

বিজেপি অবশ্য কংগ্রেস-সহ বিরোধীদের এই দাবিকে মান্যতা দিতে চায় না। তবে আজ যে এক তরফা ভাবে বিলটি পাশ করিয়ে নেওয়া যাবে না, তার আঁচ পেয়ে গিয়েছে তারাও। যে কারণে কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ নিজে উদ্যোগী হয়ে এনডিএ-র সমস্ত সাংসদকে আজ উপস্থিত থাকার কড়া নির্দেশ দিয়েছেন।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here