cpim-nilaotpal

কলকাতা: আগামী ২৮ মে উপনির্বাচন হতে চলেছে মহারাষ্ট্রের পালঘর লোকসভায়। এ বার সেখানে লড়াই হচ্ছে বহুমুখি। রয়েছেন বহুজন বিকাশ আগাধি, কংগ্রেস, সিপিএম, শিবসেনা এবং বিজেপি প্রার্থী। তবে মজার বিষয় বিজেপি-শিবসেনা জোট ভেঙে যাওয়ার পর প্রথম বড়ো নির্বাচনে কংগ্রেসকে বাড়তি অক্সিজেন দিচ্ছে শরদ পাওয়ারের এনসিপি। কিন্তু এ সবের বাইরে পালঘরের ভোট বাজারে এখন আলোচনার বিষয় একটাই-তা হল, কৃষক ও আদিবাসী ভোট যাবে কোন দিকে?

এমন এক‌টা কথা হাওয়ায় ভাসানো হচ্ছে যে এক সময় বিজেপির সঙ্গে থাকা বহুজন বিকাশ আগাধি না কি পালঘরের একটি বৃহৎ অংশের আদিবাসীর হয়ে প্রতিনিধিত্ব করছেন। সিপিএমের পলিটবুরো সদস্য নীলোৎপল বসু বলেন, “একেবারে ভুল। এই লোকসভার অন্তর্গত তিনটি শহুরে বিধানসভায় ওদের প্রভাব থাকলেও থাকতে পারে। কৃষক ও আদিবাসীদের জন্য কাজ করার কোনো নজির খুঁজে পাওয়া মুশকিল। আদিবাসী বা কৃষক সম্প্রদায়ের মানুষের সঙ্গে কোনো সম্পর্ক নেই ওদের”।

মূলত আদিবাসী ভোটকে কবজা করতেই উঠেপড়ে লেগেছে পালঘরের রাজনীতির কারবারিরা। কিন্তু সেই জায়গায় দাঁড়িয়ে সিপিএমের লড়াই অনেকটা সহজ হয়ে গিয়েছে। নীলোৎপলবাবু বলেন, “কোনো বিশালাকার জনসভা নয়, এলাকাভিত্তিক ছোট ছোট জনসভার মাধ্যমেই আমরা সাধারণ মানুষের কাছে পৌঁছোনোর চেষ্টা করছি। এই সম্প্রদায়ের মানুষের ভাগ্য নিয়ে কয়েক দশকের রাজনীতি করছে দক্ষিণপন্থী দলগুলি। এ বছরে মুম্বই লং মার্চে এই এলাকা থেকে বিশাল সংখ্যক মানুষ অংশ নিয়েছিলেন। কারণ, প্রতারণার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করা। গত ২০১৭ সালেও আদিবাসীদের জন্য বনাঞ্চল আইন লাগু করার প্রতিশ্রুতি দেয় সরকার। বলা হয়, আদিবাসীরা যে যাঁর চাষের জমিতে পাট্টা পাবেন। কিন্তু সে বারও লিখিত প্রতিশ্রুতি দেওয়ার পর কোনো কাজ হয়নি। এ বারও একই রকম কাজ করছে মহারাষ্ট্র সরকার। আমরা ঘটনা প্রবাহের দিকে নজর রাখছি। প্রতিশ্রুতি পূরণ না হলে আগামী ১ জুন থেকে ফের আন্দোলন শুরু হবে”।

আর নির্বাচন? নীলোৎপলবাবু বলেন, “গতবার লোকসভার থেকে এ বার আমাদের প্রার্থী অনেক বেশি ভোট পাবেন। কৃষকের মাথার উপর ঝুলছে বুলেট ট্রেন এবং সুপার হাইওয়ের জন্য জমি অধিগ্রহণের খাড়া। এখন সরকারি ভাবে জমি নেওয়া না হলেও সেই কাজ শুরু হতে বেশি দেরি নেই। ফলে গরিব চাষির লড়াইয়ের এক মাত্র হাতিয়ার লাল ঝান্ডা। অন্য দিকে দুগ্ধ উৎপাদনকারীরাও সঠিক মূল্য পাচ্ছেন না। সব মিলিয়ে সাধারণ খেটে-খাওয়া মানুষ বামপন্থী প্রার্থীর উপরই আস্থা প্রকাশ করছেন”।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here