sterlite industries tuticorin

ওয়েবডেস্ক: মঙ্গলবারই তামিলনাড়ুর তুতিকোরিনে স্টারলাইট কারখানা বন্ধ করে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে রাজ্য সরকার। এমনটা হলে কাজ হারাবেন এই কারখানার সঙ্গে যুক্ত তিরিশ হাজার মানুষ। এমনই জানাল স্টারলাইট কর্তৃপক্ষ।

স্টারলাইটের সিইও পি রামনাথন একটি বিবৃতিতে বলেন, “তামিলনাড়ুর সরকারের নির্দেশমতো কারখানা যদি সত্যি বন্ধ হয়ে যায় তা হলে শুধুমাত্র তুতিকোরিন শহর বা তার পার্শ্ববর্তী এলাকার অর্থনীতি নয়, ক্ষতিগ্রস্ত হবে সমগ্র দেশের অর্থনীতি।”

তাঁর কথায়, “এক দিকে যেমন কাজ হারাতে পারেন তিরিশ হাজার মানুষ, ঠিক তেমনই বিপদে পড়তে পারেন এই কারখানায় জিনিসপত্র পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত বিভিন্ন ক্ষুদ্র এবং মাঝারি শিল্প।” এর পাশাপাশি ভারতের আমদানি খরচ আরও বাড়বে বলেও জানিয়েছেন রামনাথন। তিনি বলেন, “বেদান্তা স্টারলাইট তামা উৎপাদনে দেশের বৃহত্তম। এর ওপরে দেশের প্রতিরক্ষা এবং বিদ্যুৎ বিভাগ নির্ভরশীল। কারখানাটি বন্ধ করে দিলে আমদানির ওপরে নির্ভর করতে হবে। ফলে খরচা অনেক বাড়বে।”

উল্লেখ্য, পরিবেশ দূষণ ছড়ানোর অভিযোগে গত ২২ মে স্টারলাইট কারখানা বন্ধ করে দেওয়ার দাবিতে শুরু হয় বিক্ষোভ। সেই বিক্ষোভে পুলিশের গুলিচালনাতে মৃত্যু হয় ১৩ জন বিক্ষোভকারীর। এর পর তামিলনাড়ু সরকারকে কারখানা বন্ধ করার সুপারিশ করে রাজ্যের দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদ। পর্ষদের সেই সুপারিশকে অনুমোদন করে পালানিস্বামী সরকার।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here