‘এই কারবার বন্ধ করা উচিত’, কৃষকদের ‘সত্যাগ্রহ’ নিয়ে কটাক্ষ সুপ্রিম কোর্টের

0
যন্তরমন্তরে অহিংস বিক্ষোভের অনুমতি চেয়ে সুপ্রিম কোর্টে গিয়েছিল কৃষক সংগঠন। প্রতীকী ছবি

যন্তরমন্তরে অহিংস বিক্ষোভের অনুমতি চেয়ে সুপ্রিম কোর্টে গিয়েছিল কৃষক সংগঠন।

নয়াদিল্লি: যন্তরমন্তরে দু’শো জন লোকের বিক্ষোভের অনুমতি চেয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিল কিসান মহাপঞ্চায়েত। শুক্রবার সেই মামলার শুনানিতে সংগঠনকে যারপরনাই কটাক্ষ করল আদালত!

সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি এএম খানউইলকর এবং বিচারপতি সিটি রবিকুমারের একটি বেঞ্চ এ দিন বলল, কৃষক গোষ্ঠী শহরকে ‘শ্বাসরুদ্ধ’ করেছে এবং বাধা দিয়েছে নিরাপত্তা কর্মীদের।

কৃষক সংগঠনটি নয়াদিল্লির যন্তরমন্তরে প্রায় ২০০ জনের অহিংস বিক্ষোভ (সত্যাগ্রহ) করার অনুমতি চেয়েছিল। সেই আবেদনের শুনানিতে আদালতের পর্যবেক্ষণে বলা হয়, কৃষক সংগঠনগুলি তিনটি কৃষি আইনের বিরুদ্ধে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছে। এর বৈধতা এখন আইনের আওতায় রয়ে গেছে। বিচারপতি খানউইলকর বলেন, এ ভাবে, “প্রতিবাদ করার কোনো মানে হয় না”।

লাইভ ল’র রিপোর্ট অনুযায়ী, বিচারপতি বলেন, “সত্যাগ্রহ করে কী লাভ? আপনি আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন। আদালতের প্রতি আস্থা আছে। এক বার যখন আদালতের দ্বারস্থ হলেন, তখন প্রতিবাদ করার মানে কী? আপনি কি বিচার ব্যবস্থার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করছেন? সিস্টেমের প্রতি বিশ্বাস আছে”।

দিল্লির সীমানায় স্বাভাবিক জনজীবন ব্যাহত করার জন্য কৃষক সংগঠনগুলোকে দায়ী করেন বিচারপতি। তিনি বলেন, “পুরো শহরের শ্বাসরোধ করে ফেলেছেন, এখন আপনি শহরের ভিতরে আসতে চান! আশেপাশের বাসিন্দারা কি আপনাদের প্রতিবাদে খুশি? এই কারবার বন্ধ হওয়া উচিত। নিরাপত্তা এবং প্রতিরক্ষা কর্মীদের বাধা দিচ্ছেন। এটা মিডিয়ায় ছিল। এই সবই থামানো উচিত। এক বার আপনি আইন চ্যালেঞ্জ করে আদালতে এলে প্রতিবাদ করার কোনো মানে হয় না”।

কৃষকদের জাতীয় সড়ক অবরোধের বিষয়টিও উঠে আসে আদালতের পর্যবেক্ষণে। তবে কিসান মহাপঞ্চায়েতের আইনজীবী এ ব্যাপারে বলেন, “আমরা জাতীয় সড়ক অবরোধ করিনি। সেখানে আমাদের আটক করেছিল পুলিশ”। আদালতে জমা করা হলফনামায় সংগঠন জানিয়েছে, জাতীয় সড়ক অবরোধ করা তাদের বিক্ষোভ কর্মসূচির অংশ নয়।

আজকের আরও কিছু উল্লেখযোগ্য খবর পড়ুন এখানে:

বেতন বাকি থাকলেও বেসরকারি স্কুল বিতাড়িত করতে পারবে না পড়ুয়াকে, নির্দেশ হাইকোর্টের

ভুল খবর! এয়ার ইন্ডিয়ার নিয়ন্ত্রণ টাটার হাতে যাওয়া নিয়ে চাঞ্চল্যকর দাবি কেন্দ্রের

বিজেপির সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করলেন রায়গঞ্জের বিধায়ক কৃষ্ণ কল্যাণী

রাজ্যকে না জানিয়ে জল ছেড়েছে ডিভিসি, ‘ম্যানমেড’ বন্যা বললেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

১৪ বছরে সর্বাধিক বৃষ্টি দিয়ে দক্ষিণবঙ্গে শেষ হল বর্ষার মরশুম, আগামী দিনে দুর্যোগের আশংকা কম

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন