নয়াদিল্লি : “নোট বাতিলের পর থেকেই বার বার প্রশ্ন উঠছে। সরকার কেন এত বার তার নীতি-নিয়মের পরিবর্তন করছে? এই সরকার জনগণের সরকার। অনুভূতিশীল সরকার। তাই কোনো নির্দেশ দেওয়ার পর কিছু সময় অন্তর অন্তর মানুষের কাছ থেকে মতামত জানছে এই সরকার। তাঁদের সুবিধে অসুবিধে সব কিছুর ওপর প্রয়োজনমতো তার নীতির পরিবর্তন করে মানুষকে স্বস্তি দেওয়ার চেষ্টা করছে। তার নীতি-নির্দেশ সংশোধন করে মানুষের সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করছে সব সময়ে। চেষ্টা করছে যাতে কষ্ট করতে না হয় জনগণকে। এটা একটা কঠিন লড়াই। গত ৭০ বছরে এমন এই প্রথম। কালো টাকা, অন্যায় দুর্নীতির বিরুদ্ধে এটা মহাযজ্ঞ। এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ালে, এরা নতুন উপায়ে সরকারের সেই প্রচেষ্টাকে ব্যর্থ করতে চেষ্টা করে। সরকারের কাছে এর উপযুক্ত জবাব, এর প্রতিষেধক আছে। কিন্তু তারা আবার নতুন উপায় খাটিয়ে তা কেটে বেরিয়ে যায়। তাই লড়াই চলতেই থাকবে, যতক্ষণ না পর্যন্ত এই দুর্নীতি, অন্যায় আর কালো টাকাকে পরাস্ত করা যায়” — ২৭তম ‘মন কি বাত’ বেতার অনুষ্ঠানে রবিবার এই কথাই বললেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

বড়োদিনের সকালে নিজের মনের কথা আর তার সরকারের বিষয়ে কথা বললেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, প্রভু যিশুও গরিবদের জন্য কাজ করতে পছন্দ করতেন। গরিবদের করা কাজও তিনি ভালোবাসতেন।

নোটবন্দি নিয়ে মোদী বলেন, অন্যায় দুর্নীতির বিরুদ্ধে এই পথ চলায় মানুষ তাঁর সঙ্গে আছেন। তাই তাঁদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী বলেন, এই সিদ্ধান্ত নতুন প্রজন্মের জন্য নতুন পথ খুলে দিচ্ছে। নগদবিহীন যুগের সূচনায় ডিজিট্যাল কর্মসূচি আনতে নতুন প্রজন্ম বিশেষ ভূমিকা নিতে পারে। আর এই নতুন ব্যবস্থা শেখার আগ্রহ যে কোনো বয়সের মানুষের মধ্যেই রয়েছে। সেটা একটা ভালো ব্যাপার। প্রথমে জনগণ ভয় পাচ্ছিলেন। কিন্তু ডিজিট্যাল ব্যবস্থা চালু হয়ে যাওয়ার পর সকলের মধ্যেই উৎসাহ বাড়ছে।

এ দিনের অনুষ্ঠানে তিনি দু’টি যোজনার কথা জানান। এক হল ‘ডিজি ধন ব্যাপার যোজনা’, দুই, ‘লাকি গ্রাহক যোজনা’। ডিজিট্যাল লেনদেনের ক্ষেত্রে উৎসাহ বাড়াতে এই নতুন ব্যবস্থা আনল সরকার। ই-ব্যাঙ্কিং-এ উৎসাহ দিতে মোদী বলেন, এই প্রতিযোগিতা চলবে ১০০ দিন অবধি। এতে যোগদানকারীদের মধ্যে পনেরো হাজার মানুষকে লাকি ড্রয়ের মাধ্যমে এক হাজার টাকা থেকে ১৫ হাজার টাকা করে পুরস্কার দেওয়া হবে।

এ বছর শীতকালীন অধিবেশনে কোনো কাজ না হওয়ায় দুঃখ প্রকাশ করেন প্রধানমন্ত্রী। এ ছাড়া ২৭তম ‘মন কি বাত’ অনুষ্ঠানে নরেন্দ্র মোদী দেশের সকল কৃতী খেলোয়াড়দের সাফল্যে অভিনন্দন জানান। নতুন বছরের জন্যও দেশবাসীকে শুভেচ্ছা জানান প্রধানমন্ত্রী।  

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here