ভারতের ছ’জন উপরাষ্ট্রপতি যাঁরা রাষ্ট্রপতি হয়েছেন

0
1354

ওয়েবডেস্ক: দশ বছর উপরাষ্ট্রপতির পদ সামলানোর পর দায়িত্ব ছাড়ছেন হামিদ আনসারি। বেঙ্কাইয়া নাইড়ু এবং গোপালকৃষ্ণ গান্ধীর মধ্যে কোনো একজন উপরাষ্ট্রপতি হতে চলেছেন। অঙ্কের বিচারে অনেক এগিয়ে বেঙ্কাইয়া।

দশ বছর উপরাষ্ট্রপতি থাকার পরেই রাষ্ট্রপতি হওয়া হল না হামিদ আনসারির। সামনের মাসে যিনি উপরাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হবেন তিনি ভবিষ্যতে রাষ্ট্রপতি হবেন কি না, সেই ব্যাপারেও কোনো নিশ্চয়তা নেই। তবে ভারত অতীতে এমন ছ’জন উপরাষ্ট্রপতি পেয়েছে যাঁরা রাষ্ট্রপতি হয়েছিলেন। একবার দেখে নেওয়া যাক সেই তালিকা।

১) ডঃ সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণন

১৯৫২ সালে উপরাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হয়েছিলেন শিক্ষক ডঃ সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণন। পরের দশ বছর এই পদে থাকার পর, ১৯৬২ সালে ভারতের রাষ্ট্রপতি হন তিনি।

২) ডঃ জাকির হুসেন

১৯৬২ সালে রাধাকৃষ্ণন উপরাষ্ট্রপতি পদ ছাড়ার পর ভারতের নতুন উপরাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হন ডঃ জাকির হুসেন। পাঁচ বছর পর রাধাকৃষ্ণননের দায়িত্ব শেষ হওয়ার পর রাষ্ট্রপতির আসনে বসেন জাকির। মাত্র দু’বছর এই পদে থাকার পরে ১৯৬৯ সালে তাঁর মৃত্যু হয়।

৩) ভিভি গিরি

১৯৬৭ সালে জাকির হুসেনের ছেড়ে যাওয়া উপরাষ্ট্রপতির গদিতে বসেন ভিভি গিরি। ১৯৬৯ সালে ১৩ মে, জাকির হুসেনের মৃত্যুর পর উপরাষ্ট্রপতির পাশাপাশি অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি হিসেবে দায়িত্ব নিতে হয় থাকে। তিন মাস পর দু’টি পদই ছেড়ে রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে দাঁড়ান তিনি। নিলম সঞ্জিব রেড্ডির সঙ্গে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হলেও, স্থায়ী রাষ্ট্রপতির আসন দখল করেন গিরিই।

৪) আর বেঙ্কটরমন

১৯৮৪ সালে ৩১ আগস্ট উপরাষ্ট্রপতি হিসেবে দায়িত্বভার গ্রহণ করেন বেঙ্কটরমন। তিন বছর পর জ্ঞানী জৈল সিংহের পরিবর্তে রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হন বেঙ্কটরমন।

৫) ডঃ শঙ্কর দয়াল শর্মা

১৯৮৭-তে বেঙ্কটরমনের ছেড়ে যাওয়া উপরাষ্ট্রপতির আসনে বসেন শঙ্কর দয়াল শর্মা। ১৯৯২ সালে রাষ্ট্রপতির শিরোপা ওঠে তাঁর মাথায়।

৬) কে আর নারায়ণন

রাষ্ট্রপতির নির্বাচিত হওয়ার পর উপরাষ্ট্রপতির পদ ছেড়ে দেন শঙ্কর দয়াল শর্মা। সেই পদে নির্বাচিত হন কে আর নারায়ণন। ১৯৯৭ সালে শঙ্কর দয়াল শর্মার উত্তরাধিকারি হিসেবে টিএন সেশনকে হারিয়ে রাষ্ট্রপতির আসনে বসেন তিনি।

সেই শেষ। কংগ্রেস বা কংগ্রেস-সমর্থিত জোট সরকারের দিন পেরিয়ে ক্ষমতায় আসে বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ সরকার। এই ধারাবাহিকতা রক্ষার কোনো দায় তাঁদের থাকার কথা নয়। ছিলও না। তারপর কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন ইউপিএ সরকার এল। স্বাভাবিক নিয়মেই তাঁরা বিজেপি আমলের রাষ্ট্রপতির কার্যকাল শেষ হতেই ওই পদে বসাল নিজেদের রাজনীতির লোকদের। এখন আবার এনডিএ। এবার তাঁদের লোক।

এর পাশাপাশি রাষ্ট্রপতি প্রার্থী বাছাইয়ের ক্ষেত্রে গত দু’দশক ধরে চলছে রকমারি ‘প্রথম’-এর সিরিজ। প্রথম ‘অরাজনৈতিক’ ব্যক্তি, প্রথম মহিলা পর্ব শেষে এবার দ্বিতীয় দলিতের পালা। এরপর হয়তো প্রথম তফসিলি উপজাতি প্রার্থী হবেন কেউ। সব মিলিয়ে উপরাষ্ট্রপতি পদ থেকে রাষ্ট্রপতি পদে প্রমোশন হওয়ার পুরোনো দিন অদূর ভবিষ্যতে ফেরা মুশকিল। সরকারের ধারাবাহিকতা থাকলে অবশ্য অন্য কথা।

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here