salman khan

ওয়েবডেস্ক: শরীরটাকে তো ঠিক রাখতে হবে! না হলে মনের উপরে যে ভয়ানক চাপটা পড়ে চলেছে দিন আর রাতের ২৪ ঘণ্টা জুড়ে, তার জের শরীর সামলাবে কী করে!

ফলে খবর বলছে, হাজতে গিয়েও শরীরচর্চার অভ্যাস ছাড়েননি সলমন খান। জোধপুর সেন্ট্রাল জেলের কয়েদি নম্বর ১০৬-কে খবর মোতাবেকে শুক্রবার সকালে প্রায় ঘণ্টা তিনেক ধরে শরীরচর্চা করতে দেখা গিয়েছে।

জেলে যাওয়ার পর থেকে খুব স্বাভাবিক কারণেই মেজাজ ভালো থাকার কথা নয় বলিউডের প্রথম সারির এই অভিনেতার। ফলে তার জের এসে পড়েছে খাওয়ার ব্যাপারেও। জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার বিকেলে জেলে ঢোকার পর রাতের খাবার খাননি সলমন। শুক্রবার সকালে প্রাতরাশ এলে সেটাও প্রত্যাখ্যান করেন। অবশ্য কিছু পরে মত-ও পালটান। জানতে চান, জেলের ক্যান্টিন থেকে তিনি কিছু কিনে খেতে পারেন কি না! সেই আর্জি মঞ্জুর হলে দুধ আর রুটি কিনে খেয়েছেন বলে খবর।

এর পরে কিছু ক্ষণ না কি উদভ্রান্তের মতো গারদের মধ্যেই পায়চারি করেছেন নায়ক। খুব সম্ভবত তিনি জামিন পাওয়ার সুসংবাদের অপেক্ষায় ছিলেন। কিন্তু যখন জানতে পারলেন জামিন পাচ্ছেন না, তখন ফের মুষড়ে পরেন। পরিণামে বাতিল করে দেন দুপুরের খাওয়াটাও।

আর এরই মাঝে প্রায় ঘণ্টা তিনেক ধরে তাঁকে শরীরচর্চায় ব্যস্ত থাকতে দেখা যায় গারদের ভিতরে। ডন, বৈঠক আর দড়ি ছাড়া স্কিপিং- এই ছিল নায়কের শরীরচর্চার তালিকায়। এই নিয়েই প্রায় ঘণ্টা তিনেক পার করে দেন তিনি।

স্বাভাবিক! বোঝাই যাচ্ছে, জেলে তাঁর সময় কাটতে চাইছে না। আর তার কথাও তো নয়! ফলে খাবার খুব একটা মুখে না তুললেও শরীরচর্চা ছাড়ছেন না সলমন। ওটাই আপাতত তাঁর সময় কাটানো আর দুশ্চিন্তাকে দূরে রাখার একমাত্র উপায়!

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন