বিপদের দিনে ভারতের পাশে টিকটক, দিল ১০০ কোটি টাকার সুরক্ষা সামগ্রী

খবর অনলাইনডেস্ক: ভারতে যখন করোনাভাইরাসের (Coronavirus) সংক্রমণ বাড়ছে তখন সোশ্যাল মিডিয়ায় চিনা সামগ্রী বর্জন করার দাবি উঠে গিয়েছে। টিকটক (Tiktok) যাতে কেউ ব্যবহার না করেন, সেই দাবিও উঠেছে। কিন্তু বিপদের দিনে ভারতের পাশে এই টিকটকই দাঁড়াল।

চিকিৎসক এবং স্বাস্থ্যকর্মীদের জন্য চার লক্ষ সুরক্ষা সামগ্রী দিল এই সংস্থাটি, যার মূল্য ১০০ কোটি টাকা।

এই অ্যাপটির তরফে জানানো হয়েছে, প্রথম ব্যাচে ২০ হাজার ৬৭৫ সেফটি স্যুট (Safety Gear) ভারতে পৌঁছে গিয়েছে। শনিবারের আগে দ্বিতীয় ব্যাচে আরও ১ লক্ষ ৮০ হাজার ৩৭৫ সেফটি স্যুট পৌঁছে যাবে। আর বাকি ২ লক্ষ সেফটি স্যুট আগামী সপ্তাহে ভারতে পৌঁছে যাবে। এই সংক্রান্ত একটি চিঠিও কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানিকে (Smriti Irani) পাঠিয়েছে টিকটক কর্তৃপক্ষ।

কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে পাঠানো এই চিঠিতে টিকটক ইন্ডিয়ার প্রধান নিখিল গান্ধী জানিয়েছেন, তাঁদের পাঠানো সেফটি স্যুট ঠিকমতো স্বাস্থ্যকর্মীদের মধ্যে ভাগ করে দেওয়ার জন্য তাঁরা সরকারের কাছে কৃতজ্ঞ। এই লড়াইয়ে ভারতের পাশে রয়েছে টিকটক।

আরও পড়ুন রাজ্যে তিন জনের মৃত্যুর কারণ করোনাভাইরাস নয়, বিবৃতি দিয়ে জানাল স্বাস্থ্য দফতর

ভারতে এই মুহূর্তে টিকটক ব্যবহারকারীর সংখ্যা ২ কোটি ৫০ লাখের বেশি। এই ব্যবহারকারীদের টিকটকের তরফে জানানো হয়েছে, এই পরিস্থিতিতে সমাজে সচেতনতার প্রচার করতে। করোনা সংক্রমণ রুখতে কী করা উচিত ও উচিত নয়, সেই সম্পর্কে ভিডিও তৈরি করার আবেদন করা হয়েছে।

টিকটকের তরফে বলা হয়েছে, তারা নিশ্চিত প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর (Narendra Modi) নেতৃত্বে এই মহামারির বিরুদ্ধে যুদ্ধে জিতবে ভারত। যে ভাবে করোনা মোকাবিলায় সরকার এগিয়ে এসেছে তা বাকি দেশগুলির কাছেও শেখার মতো বলেই জানিয়েছে তারা।

উল্লেখ্য, চিকিৎসা সংক্রান্ত নিরাপত্তা সামগ্রীর আকাল রয়েছে ভারতে, এমনই জানাচ্ছে ওয়াকিবহাল মহল। এরই মধ্যে টিকটকের এই সাহায্য করোনার বিরুদ্ধে ভারতের লড়াইয়ে যে অনেকটাই কাজে দেবে তা বলাই বাহুল্য।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.