bhima koregaon violence
ছবি: ইন্ডিয়া টুডে থেকে

ওয়েবডেস্ক: ভিমা কোরেগাঁও হিংসা মামলায় গত জুন মাসে গ্রেফতার করা হয়েছিল পাঁচ সমাজকর্মীকে। তাঁদের বিরুদ্ধে পুলিশের চার্জশিট দেওয়ার কথা আগামী ৩ সেপ্টেম্বর। কিন্তু নির্ধারিত ৯০ দিনের সময়সীমা পার হতে বসেছে দেখে চার্জশিট জমার জন্য অতিরিক্ত সময় দেওয়া হল পুলিশকে। জানা গিয়েছে, গত ২৮ আগস্ট নতুন করে পাঁচ সমাজকর্মীর গ্রেফতারির পর এই নির্ধারিত সময়সীমা বর্ধিত করা হয়েছে।

মহারাষ্টেরে ভিমা কোরেগাঁওয়ে ১ জানুয়ারির হিংসাত্মক ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে গত জুনে গ্রেফতার করা হয় সুরেন্দ্র গাডলিং, সোমা সেন, মহেশ রাউত, সুধীর ধাওয়ালে এবং রোনা উইলসনকে। এই পাঁচ সমাজকর্মীকে গ্রেফতারির পর আদালত নির্দেশ দেয় পরবর্তী ৯০ দিনের মধ্যে তাঁদের বিরুদ্ধে চার্জশিট জমা করতে।

তদন্তকারী আধিকারিকদের তরফে জানানো হয়েছে, আন ল’ফুল (প্রিভেনশন) অ্যাক্টে তাঁদের গ্রেফতার করা হয়েছিল। ওই আইন ্অনুযায়ী, পুলিশ যদি প্রাথমিক নির্ধারিত ৯০ দিন সময়সীমার মধ্যে চার্জশিট জমা করতে সফল না হয়, তা হলে তা বাড়িয়ে ১৮০ দিন পর্যন্ত করা যেতে পারে।

তদন্তকারী আধিকারিক শিবাজী পাওয়ার জানিয়েছেন, আমরা আদালতের কাছে  আজ বলেছি, এই ঘটনার তদন্ত এগোচ্ছে। কিন্তু উৎসে পৌঁছাতে আরও বেশ কয়েক দিন সময় লাগবে।

যদিও আইনজীবী রাহুল দেশমুখের দাবি, “এ ধরনের কোনো আবেদন আদালতের কাছে জমা পড়েনি। ফলে অতিরিক্ত সময় পাওয়ার কোনো নোটিশও আমরা পাইনি”।


আরও পড়ুন: ভিমা-কোরেগাওঁ হিংসার আগের দিন কারা আয়োজন করেছিল এলগার পরিষদ, স্পষ্ট জানালেন দুই প্রাক্তন বিচারপতি

উল্লেখ্য, গত ২৮ আগস্ট হায়দরাবাদ থেকে সমাজকর্মী-কবি ভারভারা রাও, দিল্লি থেকে গৌতম নওলাখা, থানে থেকে অরুণ ফেরেইরা, মুম্বই থেকে ভার্নন গঞ্জালভেজ ও ফরিদাবাদ থেকে মানবাধিকার আইনজীবী সুধা ভরদ্বাজকে গ্রেফতার করে পুণে পুলিশ। তাঁদের বিরুদ্ধে মাওবাদী কার্যকলাপে যুক্ত থাকার অভিযোগেই এই গ্রেফতারি বলে জানায় পুলিশ।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন