ওয়েবডেস্ক: তিন বছর আগে আইএএস পরীক্ষায় শীর্ষস্থান দখল করেছিলেন দিল্লির হিন্দু দলিত টিনা দাবি। সেই পরীক্ষায় দ্বিতীয় হয়েছিলেন কাশ্মীরের আথার আমির খান। দু’বছর আগে আইএএসের প্রশিক্ষণ নেওয়ার সময় আলাপ হয় দু’জনের। তার পর থেকেই প্রেম শুরু। অবশেষে সেই প্রেমপর্ব-শেষে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হলেন টিনা এবং আথার। শনিবার কাশ্মীরের পহলগামে ঘটা করে তাঁদের বিয়ের অনুষ্ঠান হয়।

শনিবার পহলগাম ক্লাবে দু’জনের বিয়ের অনুষ্ঠানের পরে রবিবার অনন্তনাগে প্রীতিভোজের অনুষ্ঠানটিও হয়ে যায়। দুই পরিবারের তরফ থেকে অনেক অতিথি সেই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

২৪ বছর বয়সি টিনা এখন রাজস্থানের অজমেরে কর্মরত। প্রথম দলিত হিসেবে আইএএস পরীক্ষায় শীর্ষস্থান দখল করে ইতিহাস সৃষ্টি করেন টিনা। প্রথম সুযোগেই পরীক্ষায় পাশ করেন তিনি। ৫২ শতাংশ নম্বর পান টিনা। অন্য দিকে ওই পরীক্ষা ছিল আথারের দ্বিতীয় সুযোগ। সেখানে তিনি দ্বিতীয় হন।

তবে তাঁদের প্রেমপর্ব এবং বিয়ে নিয়ে বিতর্কও কম হয়নি। এই সম্পর্ককে লাভ জিহাদ আখ্যা দিয়ে টিনার বাবা-মাকে চিঠি দিয়েছিল উগ্র হিন্দুত্ববাদী সংগঠন, হিন্দু মহাসভা। সেই সঙ্গে দাবি তুলেছিল আথারের ‘ঘর ওয়াপসি’র, অর্থাৎ আথারকে যেন হিন্দু ধর্ম গ্রহণ করতে বলা হয়। কিন্তু সেই সব চিঠিকে টিনার পরিবার যে বিশেষ গুরুত্ব দেয়নি সেটাই প্রমাণিত হয়ে গেল দু’জনের বিয়ের মাধ্যমে।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন