tirupati balaji temlpe

চেন্নাই: মন্দির কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগে সরব হয়েছিলেন তিনি। তার শাস্তিস্বরূপ তাঁকে অবসরে যেতে বাধ্য করা হল। তিনি রমনা দিক্ষিতুলু। ভারতের সব থেকে ধনী মন্দির, তিরুপতির প্রধান পুরোহিত তিনি।

গত মঙ্গলবার চেন্নাইয়ে রমনা অভিযোগ করে বলেছিলেন, মন্দিরের টাকা নয়ছয় করছে কর্তৃপক্ষ। মন্দিরের পবিত্রতাও কর্তৃপক্ষ নষ্ট করছে বলে অভিযোগ করেন তিনি। পাশাপাশি দুর্নীতি রোধে মন্দিরে ভক্তদের দান এবং তিরুপতি মন্দির বোর্ড টিটিডির খরচার ব্যাপারে প্রকাশ্য অডিটেরও দাবি জানান তিনি।

সেই সঙ্গে টিটিডিকে তথ্যের অধিকার আইনের আওতায় নিয়ে আসা এবং সমস্ত অর্থ এবং গয়নাগাটি দানের ওপরেও স্বচ্ছতার দাবি করেন রমনা। পাশাপাশি সৌন্দর্যোয়নের নামে মন্দির ধ্বংস করার অভিযোগও জানান তিনি।

রমনার এতগুলো অভিযোগ মন্দির কর্তৃপক্ষ যে মেনে নিতে পারেনি সেটা তাদের পরবর্তী সিদ্ধান্তের স্পষ্ট হয়ে গিয়েছে। এই অভিযোগের পরেই বৈঠকে বসে মন্দির কর্তৃপক্ষ। সেখানে তৎক্ষণাৎ রমনাকে অবসরে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সেই সঙ্গে আরও তিনজন পুরোহিতকেও অবসরে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

টিটিডির এই সিদ্ধান্তের পরে বিতর্ক যে বাড়বে তা বলাই বাহুল্য।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন