বাদল অধিবেশনের প্রথম দিনই কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নিশীথ প্রামাণিকের নাগরিকত্ব নিয়ে বিতর্ক, হট্টগোল

0

খবর অনলাইন ডেস্ক: প্রথমবার সাংসদ হয়েই কেন্দ্রের নরেন্দ্র মোদী মন্ত্রীসভায় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের প্রতিমন্ত্রী হয়েছেন নিশীথ প্রামাণিক (Nisith Pramanik)। তবে মন্ত্রীসভার গুরুত্বপূর্ণপদে শপথ নেওয়ার সঙ্গেই নাগরিকত্ব বিতর্কে জড়িয়েছেন কোচবিহারের বিজেপি সাংসদ।

সোমবার রাজ্যসভায় নিশীথ প্রামাণিকের নাগরিকত্ব নিয়ে ওঠা বিতর্কের সমাধান চাইল তৃণমূল কংগ্রেস। এ দিন তৃণমূল সাংসদ সুখেন্দুশেখর রায় জানতে চান, নিশীথ বাংলাদেশের নাগরিক বলে যে অভিযোগ উঠেছে তা সত্যি কি না।

Loading videos...

তাঁকে বাংলাদেশের নাগরিক বলে দাবি করে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দিয়েছেন অসম প্রদেশ কংগ্রেসের সভাপতি তথা রাজ্যসভার সাংসদ রিপুণ বোরা। এ দিন রাজ্যসভায় তৃণমূল সাংসদের মন্তব্যে সমর্থন জানিয়ে ঘটনার তদন্ত দাবি করা হয় কংগ্রেসের তরফেও।

এ দিকে পশ্চিমবঙ্গের বিজেপি সাধারণ সম্পাদক রবিবার দাবি করেন, “নিশীথ শরণার্থী হয়ে বাংলাদেশ থেকে ভারতে আসেন, তর্কের খাতিরে অভিযোগ মেনে নিলেও এটা তো ঠিক যে, নিশীথ হিন্দু। সব হিন্দুই ভারতীয়- এমনটাই মনে করে বিজেপি”। এ দিনেও বিরোধী সাংসদদের মন্তব্যে বিজেপি সাংসদেরা প্রতিবাদ জানালে সভায় হট্টগোল শুরু হয়ে যায়। বিজেপির দাবি, বিরোধীদের অভিযোগ মিথ্যা। নিশীথ ভারতের নাগরিক।

প্রসঙ্গত, অসমের ওই সাংসদ দাবি করেছেন, নিশীথ আসলে বাংলাদেশের পলাশবাড়ির হরিনাথপুরের বাসিন্দা। তিনি ভারতে এসেছিলেন কম্পিউটার কোর্স করার নামে। তারপর এখানেই থেকে যান। প্রথমে তৃণমূলে এবং পরে বিজেপিতে যোগ দিয়ে সাংসদ হন। তিনি যে নথি দেখিয়ে নিজেকে কোচবিহারের বাসিন্দা বলে দাবি করেছেন, সেই নথি আসলে ভুয়ো। জালিয়াতি করে তৈরি করা।

কংগ্রেস সাংসদের মন্তব্য সমর্থন করে পশ্চিমবঙ্গের শিক্ষামন্ত্রী এবং তৃণমূল মুখপাত্র ব্রাত্য বসু বলেন, “রাজ্যসভার সাংসদ রিপুণ বোরার তোলা সব প্রশ্নগুলিই সঠিক। বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে দেখানো হয়েছে নিশীথ প্রামাণিক বাংলাদেশের নাগরিক। এই ধরনের লোককে মন্ত্রী করার আগে কি কোনো কিছুই খতিয়ে দেখা হয়নি?! ভুলে গেলে চলবে না এই নিশীথের বিরুদ্ধে কতগুলি গুরুতর অপরাধমূলক মামলা চলছে। লজ্জাজনক”।

আরও পড়তে পারেন: কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী নিশীথ প্রামাণিকের নাগরিকত্ব নিয়ে প্রশ্ন তুললেন ব্রাত্য বসু

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন